kalerkantho


কোচের কাছে ভয়ানক অপমানের শিকার হয়েছিলেন উমর আকমল!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৭ আগস্ট, ২০১৭ ১৬:৪০



কোচের কাছে ভয়ানক অপমানের শিকার হয়েছিলেন উমর আকমল!

ছবি: ক্রিকইনফো

দীর্ঘদিন উপেক্ষিত হতে হতে অবশেষে ধৈর্যের বাঁধ ভাঙল উমল আকমলের। ঘটনা গত জুলাইয়ে হলেও এতদিন পর মুখ খুললেন তিনি। লন্ডন থেকে চোটের চিকিৎসা করে ফিরে গিয়েছিলেন লাহোরের ন্যাশনাল ক্রিকেট অ্যাকাডেমিতে। লক্ষ্য ছিল পুনর্বাসন প্রক্রিয়া শুরু করা। কিন্তু সেখানে গিয়ে এক অদ্ভুত খারাপ পরিস্থিতির শিকার হতে হল তাকে। বাদ যেতে হল পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের জাতীয় চুক্তি থেকেও।

ঠিক কী ঘটেছিল সেই সময়? এতদিন পর সেই কথাই এবার প্রকাশ্যে সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন ডান হাতি এই ব্যাটসম্যান। সেই সময় জাতীয় দলের কোচ মিকি আর্থার কতটা খারাপ ব্যবহার করেছিলেন তার সঙ্গে তাও আবার সিনিয়র প্লেয়ারদের সামনে। কিন্তু কেউ কিছুই বলেননি।

বুধবার আকমল সংবাদ মাধ্যমকে বলেন, 'আমি যেটা বলছি তা নিয়ে আমার কোনো আক্ষেপ নেই। মিকি আর্থার প্রথমে আমাকে বেশ কিছু খারাপ কথা বলে।

তার পর আমার সঙ্গে খুব খারাপ ব্যবহার করে। আর পুরো ঘটনাটাই ঘটে ইনজামাম ভাই ও মুশতাক ভাইয়ের (আহমেদ) সামনেই। '

এর পর আকমল ব্যাটিং কোচ গ্র্যান্ট ফ্লাওয়ারের কাছে গিয়ে অনুরোধ জানান, যাতে তিনি অ্যাকাডেমিতে অনুশীলন করতে পারেন। কিন্তু কেন্দ্রীয় চুক্তি না থাকায় তাকে সেই সুযোগ দেওয়া হয়নি। আকমল বলেন, 'আমি প্রথমে গ্র্যান্ট ও পরে ফিজিওর কাছে যাই। গ্র্যান্ট আমাকে জানিয়ে দেয় তারা আমাকে কোনো সাহায্য করতে পারবে না কার আমার সেন্ট্রাল কনট্রাক্ট নেই। এর পর আমি মিকির সঙ্গে কথা বলি। '

এখানেই শেষ নয়। হেড কোচ মিকি আর্থার সেই সময় আকমলকে বলেন, তিনি যেন ইনজামাম আর মুস্তাকের সঙ্গে কথা বলেন। এর পর এই দুজনের সঙ্গে কথা বলতে গেলে তারা আবার মিকি আর্থারের কাছে ফিরিয়ে দেল আকমলকে।

দ্বিতীয়বার মিকি আর্থারের কাছে যাওয়ার পর তিনি বলেন, 'অ্যাকাডেমিতে তুমি কী করছ। তোমার ক্লাব ক্রিকেট খেলা উচিত। '

এর পরই খারাপ শব্দে আক্রমণ করতে শুরু করেন আকমলকে। যেটা মেনে নিতে পারেননি পাকিস্তানের এই ক্রিকেটার। চ্যাম্পিয়নস ট্রফির দল থেকেও তাকে ফিরিয়ে দেওয়া হয়। এতদিন পর মুখ খুলে এবার হয়তো নির্বাসনের মুখে পড়তে হতে পারে আকমলকে।


মন্তব্য