kalerkantho


ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সেই বোলিং বারবার আসবে না: মিরাজ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৬ আগস্ট, ২০১৭ ২০:২১



ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সেই বোলিং বারবার আসবে না: মিরাজ

২০১৬ সালের শেষ পর্যায়। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ধুমকেতুর মত আবির্ভাব হলো মেহেদী হাসান মিরাজের।

তার ঘূর্ণিবলে দিশেহারা হয়ে পড়ল শক্তিশালী ইংল্যান্ড। দুই ম্যাচে ১৯ উইকেট! তার ঘূর্ণিতে ইংলিশদের বিরুদ্ধে এল প্রথম টেস্ট জয়। এল সিরিজ ড্র করার আনন্দ। এবার ঘরের মাঠে সামনে আসছে অস্ট্রেলিয়া। স্পিন নির্ভর বোলিংয়ে সাকিব-তাইজুলদের সঙ্গে মেহেদী মিরাজও সর্বাগ্রে থাকবেন। তবে প্রত্যাশার ভেলায় না ভেসে মাটিতে পা রেখেই নিজের লক্ষ্যের কথা জানালেন মিরাজ।

দীর্ঘ এগার বছর অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে টেস্ট খেলতে যাচ্ছে বাংলাদেশ। শক্তিশালী অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজকে বড় সুযোগ মানছেন মিরাজ। এ সিরিজে সেরা সাফল্য পেতে চেষ্টা করবেন বলে আজ বুধবার মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে সাংবাদিকদের সামনে অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন মিরাজ।

আরও একটি বড় দলের বিপক্ষে হোম সিরিজে তার কাছ থেকে কি সেই জাদুকরী বোলিং পাওয়া যাবে? সেই ইংল্যান্ডের বিপক্ষে তার অভিষেক সিরিজের মত?

এমন প্রশ্নে একটু হেসে মিরাজ বললেন, 'আমি আগের সিরিজগুলোতে যেভাবে করেছি ঠিক সেভাবেই করতে চাই। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে যেটা হয়েছে সেটা সব সময় করা সম্ভব না। লাইফে একবার-দুইবার হতে পারে। আবার এরকম নাও হতে পারে। ওটা অপ্রত্যাশিত। তারপরও সব মিলিয়ে ভাল করতে সর্বোচ্চ চেষ্টা করব। দলের যে প্রয়োজন পূরণ করার চেষ্টা করব। একটা-দুটা উইকেট কিংবা ভালো সময়ে ব্রেক থ্রু এনে দিয়ে যদি কাজ করতে পারি তাহলে আমার ও দলের জন্য ভালো হবে। এগুলোতেই ফোকাস করছি'।

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে প্রথম টেস্ট মিরপুরে শুরু হবে ২৭ আগস্ট। তার আগে টেস্টের জন্য প্রস্তুত হয়ে যাবেন আশা মিরাজের। তিনি বলেন, 'আমি ওয়েস্ট ইন্ডিজ থেকে মাত্র আসলাম। ওখানে সাদা বলে কাজ করা হয়েছে। লাল বলে আজই শুরু করলাম। ১০-১২ দিন সময় আছে। এ সময়ে নিজের যে স্টক বোলিং আছে ভালভাবে সেটা করার চেষ্টা করব। দু'একটা ভ্যারিয়েশন আছে সেগুলো নিয়ে ট্রাই করব। নিজের যে জায়গাটায় উন্নতি করার চেষ্টা করব। '

তিনি বলেন, 'আসলে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে খেলতে পারা একটা বড় সুযোগ। খেলতে পারলে অবশ্যই ভালো লাগবে। কারণ আমরা জানি সম্প্রতি সময়ে অস্ট্রেলিয়া, ভারত অনেক বড় দল। প্রত্যাশা থাকবে ভাল কিছু করার। আর ইনশাআল্লাহ আমাদের দেশের মাটিতে খেলা। চেষ্টা করব সর্বোচ্চটা দিয়ে সেরা সাফল্য পেতে। সাকিব ভাই, তাইজুল ভাই আছেন, দলের অন্যান্যরা যারা আছেন সবাই যার যার পজিশন থেকে ভালো কিছু করে তাহলে ভালো কিছু করা সম্ভব। '

৭ টেস্টে ৩৫ উইকেট পাওয়া মিরাজ লক্ষ্য স্থির করে নিজের ওপর চাপ তৈরি করতে নারাজ। ডানহাতি এ অফস্পিনার বলেন, 'আমাকে কখনোই চাপ দেয়া হয় না। আমার ব্যক্তিগত লক্ষ্য তেমন নয়। টার্গেট ফিক্সড করলে চাপ তৈরি হওয়ার চান্স থাকে। তার চেয়ে ওই ধরনের লক্ষ্য নির্ধারণ না করে দলের চাহিদা অনুযায়ী পারফরম্যান্স করাটাই লক্ষ্য হওয়া উচিত। '


মন্তব্য