kalerkantho


খেলা হয়নি এক ম্যাচও, তবু অনেক কিছু শিখেছেন মিরাজ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৬ আগস্ট, ২০১৭ ১৯:৫০



খেলা হয়নি এক ম্যাচও, তবু অনেক কিছু শিখেছেন মিরাজ

'ডিজে' ব্র্যাভোর সঙ্গে ফ্রেমবন্দী মেহেদী মিরাজ। ছবি: ফেসবুক

প্রথমবার দেশের বাইরে টি-টোয়েন্টি লিগ খেলতে গিয়েছিলেন জাতীয় দলের তরুণ স্পিনিং অলরাউন্ডার মেহেদী হাসান মিরাজ। যদিও ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগে (সিপিএল) শাহরুখ খানের দল ত্রিনবাগো নাইট রাইডার্সের হয়ে একটি ম্যাচেও মাঠে নামা হয়নি তার।

জাতীয় দলের হয়ে অস্ট্রেলিয়া সিরিজ সামনে রেখে গত মঙ্গলবার দেশে ফিরেছেন তিনি। কেমন হলো তার সিপিএল অভিজ্ঞতা?

আজ বুধবার মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে নিজের সিপিএল অভিজ্ঞতা বর্ণনা করেন মিরাজ। সাইডবেঞ্চে বসে থাকলেও দারুণ অভিজ্ঞতা হয়েছে, অনেক কিছু শিখেছেন বলে জানান এ তরুণ ক্রিকেটার। সিপিএলে ম্যাচ না খেললেও নিয়মিত অনুশীলন করেছেন তিনি। ম্যাচবিহীন দিনগুলোতেও বাকীদের সঙ্গে ব্যাটিং-বোলিং করেছেন।

মিরাজ বলেন, 'অনেক কিছু শিখেছি। জীবনের প্রথমবারের মতো সেখানে গিয়েছি। ওখানে অনেক বড় বড় ক্রিকেটার ছিলেন। অলমোস্ট বিভিন্ন দেশের ক্রিকেটার এক সঙ্গে ছিলাম।

এক সঙ্গে ড্রেসিং রুম শেয়ার করেছি, উপভোগ করেছি, সবাই আমাকে নিয়ে মজা করেছে। অনেক ভালো লাগছে। ভালো সাপোর্ট করছে। বাংলাদেশ থেকে গিয়েছি সেটা বুঝতে দেয়নি। নিজেদের মনে করেই মিশেছে। '

সিপিএল ও বিপিএলের পরিবেশের পার্থক্য সম্পর্কে জানতে চাইলে মিরাজ সাংবাদিকদের বলেন, 'আমার কাছে মনে হয়, আমাদের দেশের উইকেট অনেক ভালো থাকে। ওয়েস্ট ইন্ডিজের উইকেট স্পিন করে। আমাদের দেশে ভালো খেলা হয়। একটা জিনিস দেখলাম ওদের ওখানে প্রথম ৬ ওভারে অনেক রান হয়। মাঝখানে আবার রান হয় না। আর আমাদের দেশে প্রথম থেকে যখন রান হয় তখন রান হতেই থাকে। '

বিদেশি কোটার মারপ্যাঁচে ম্যাচ খেলতে না পারা সম্পর্কে মিরাজ বলেন, 'টিম প্রথম থেকেই ভালো খেলেছে। হয়তো উইনিং কম্বিনেশন ভাঙ্গতে পারেনি বলেই খেলা হয়নি। টিম ম্যানেজম্যান্ট যেটা ভালো মনে করেছে সেটাই করেছে। এটা আমাদের জন্য প্রথমবার। এখানে অনেক কিছু শিখেছি। ভবিষ্যতে সুযোগ পেলে এই অভিজ্ঞতাগুলো কাজে লাগাতে পারব। '

এদিকে আজ বৃষ্টির কারণে হয়নি জাতীয় দলের অনুশীলন। ক্রিকেটাররা অনেকে ব্যক্তিগতভাবে ইনডোরে অনুশীলন করে ফিরে গেছেন।

 


মন্তব্য