kalerkantho


রেস্তরাঁ কর্মী থেকে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের 'দামী' ক্রিকেটার!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৯ মে, ২০১৭ ২১:৫১



রেস্তরাঁ কর্মী থেকে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের 'দামী' ক্রিকেটার!

ব্যাট-বল হাতে বাইশ গজে দাপিয়ে বেড়ানোর স্বপ্ন ছিল চোখে। ক্রিকেটকে যে দেশে ধর্ম বলে মানা হয়, সেই দেশের অনেক তরুণই এমন স্বপ্ন দেখেন।

কিন্তু সকলের ক্ষেত্রে স্বপ্ন সার্থক হয় না। তীব্র জেদ আর পরিশ্রম দিয়েই নিজের লক্ষ্যে পৌঁছতে সফল হয়েছেন কুলবন্ত খেজরোলিয়া। সামান্য রেস্তরাঁ কর্মী থেকে আজ মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের জার্সি গায়ে চাপাতে সফল হয়েছেন তিনি।

কোন তরুণ তুর্কিই না আইপিএলে সুযোগ পেতে চান? কুলবন্তও চেয়েছিলেন। কিন্তু রেস্তরাঁ কর্মী থেকে পেশাদার ক্রিকেটার হয়ে ওঠার সফরটা মোটেও সহজ ছিল না। গোয়ার একটি রেস্তরাঁয় কাজ করতেন তিনি। কাজের পর সুযোগ পেলে বন্ধুদের সঙ্গে ক্রিকেট খেলতেন। হঠাৎই একদিন তার বোলিং নজর কাড়ে এক বন্ধুর। সেই বন্ধুই কুলবন্তকে দিল্লি গিয়ে প্রশিক্ষণ নেওয়ার পরামর্শ দেন।

কিন্তু পরিবারের কথা ভেবে প্রথমে খানিকটা ইতস্ততই বোধ করেছিলেন কুলবন্ত। তাই বাবা-মাকে না জানিয়েই রাজধানী রওনা দেন। অভিভাবকরা ভেবেছিলেন, ছেলে হয়তো ব্যবসার কাজে বন্ধুর সঙ্গে আহমেদাবাদ গিয়েছে। কিন্তু ছেলের মন তখন পড়ে বাইশ গজে।

দিল্লির এলবি শাস্ত্রী ক্লাবে ভর্তি হন কুলবন্ত। যে ক্লাব থেকে গৌতম গম্ভীর, নীতিশ রানা, উন্মুক্ত চাঁদের মতো ক্রিকেটাররা প্রশিক্ষণ নিয়েছেন। সেখানে পেয়ে যান কোচ সঞ্জয় ভরদ্বাজকে। কুলবন্তের পেসার হয়ে ওঠার পিছনে যাঁর সবচেয়ে বেশি অবদান রয়েছে। বছরখানেকেই মুম্বাই ফ্র্যাঞ্চাইজির কর্তাদের নজরে পড়ে যান কুলবন্ত। আর স্বপ্নপূরণ হয় চলতি বছর আইপিএল নিলামের দিন। ১০ লক্ষ রুপির বিনিময়ে মুম্বাইয়ে খেলার সুযোগ পেয়ে যান তিনি। চলতি বছরই দিল্লি দলের হয়ে বিজয় হাজারে ট্রফিতে খেলেছিলেন কুলবন্ত।

চলতি আইপিএলে লিগ তালিকার শীর্ষে থেকে প্লে অফে পৌঁছেছে রোহিত শর্মার দল। তবে ফাইনালে ওঠার পথে শুরুতেই পুণের কাছে মুখ থুবড়ে পড়ে মুম্বাই। আজ শুক্রবার কলকাতার বিরুদ্ধে ডু অর ডাই ম্যাচ জিতলে তবেই ফাইনালের টিকিট হাতে আসবে। তবে এখনও পর্যন্ত মুম্বাইয়ের প্রথম একাদশে খেলার সৌভাগ্য হয়নি কুলবন্তের। কিন্তু শচীন টেণ্ডুলকার, মাহেলা জয়বর্ধনে, কায়রন পোলার্ডের মতো বিশ্বমানের তারকাদের সান্নিধ্য পাওয়াই বা উঠতি ক্রিকেটারের পক্ষে কম কী!

সূত্র: সংবাদ প্রতিদিন


মন্তব্য