kalerkantho


রিয়াদ নেই; আছেন আরেক 'মমিসিঙ্গা'

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৫ মার্চ, ২০১৭ ১৪:২০



রিয়াদ নেই; আছেন আরেক 'মমিসিঙ্গা'

গত বছরের ২৮ সেপ্টেম্বর আফগানিস্তানের বিপক্ষে ওয়ানডে অভিষেক হয় মোসাদ্দেকের। তখন তাকে ওয়ানডে ক্যাপ পরিয়ে দিয়েছিলেন মাহমুদ উল্লাহ রিয়াদ।

বলা হয়ে থাকে টেস্ট ক্রিকেটই হলো একজন ক্রিকেটারের আসল পরীক্ষা। তাই টেস্ট অভিষেক মানে ক্যারিয়ারের দারুণ একটি মাইলফলক।

তরুণ মোসাদ্দেক হোসেনের জন্য অভিষেকটা একটু বেশিই স্মরণীয় হয়ে রইল। কারণ বাংলাদেশের শততম টেস্টে অভিষিক্ত হলেন তিনি। মাথায় উঠল টেস্ট ক্যাপ; গায়ে শততম টেস্ট উপলক্ষে বিশেষ নীল ব্লেজার, গলায় স্মারক মেডেল। ক্যারিয়ারের শুরুতেই যেন স্বপ্নের চাইতে বেশি কিছু পেলেন ময়মনসিংহের ২১ বছর বয়সী এই তরুণ।

মাহমুদ উল্লাহ রিয়াদ বাদ পড়ায় এই টেস্টে ময়মনসিংহের নিয়মিত প্রতিনিধি ছিল না। মোসাদ্দেক সেই অভাবটা পূরণ করলেন। আজকের এই দিনে নিশ্চয়ই প্রয়াত বাবার কথা খুব মনে পড়ছে এই তরুণের। তাকে ক্রিকেটার বানানোর পেছনে বাবার অবদানটাই যে বেশি। গত বছর তার ওয়ানডে এবং টি-টোয়েন্টি অভিষেক হয়েছিল।

তবে বলার মতো কিছু করে দেখাতে পারেননি। ৮ ওয়ানডেতে ৩৬ গড়ে তার রান ১৮০। সর্বোচ্চ রান ৫০*। ৪টি টি-টোয়েন্টি খেলে করেছেন মাত্র ৪৮ রান। এই পরিসংখ্যানের পর তিনি কীভাবে টেস্ট দলে সুযোগ পান সেটা একটা প্রশ্ন হতে পারে। কিন্তু বিষয়টা হলো অন্য জায়গায়!

ক্ষুদ্র সংস্করণে অভিষেকের পর বারবারই বলা হচ্ছিল, মোসাদ্দেক তৈরি হয়েছে লংগার ভার্সনের ক্রিকেটর জন্য। এই কথার পেছনে স্পষ্ট যুক্তি আছে। ২০১৪ সালে প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে অভিষেক হয় মোসাদ্দেকের। এখন পর্যন্ত ২১টি ম্যাচের ৩৩ ইনিংসে ৬৮.৮৭ গড়ে করেছেন ২১৩৫ রান। ৩টি ডাবল সেঞ্চুরিসহ মোট ৭টি সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছেন তিনি। সর্বোচ্চ স্কোর ২৮২। এই মানের এক তরুণের জন্য টেস্ট অভিষেকটা ছিল নিতান্তই সময়ের ব্যাপার মাত্র। কোচ-নির্বাচকদের গুডবুকে ছিলেন তিনি। হাথুরুসিংহে দীর্ঘসময়ের জন্য দারুণ এক টেস্ট টিম তৈরির যে পরিকল্পনা করেছেন তার ফসল হলেন এই মোসাদ্দেক।

শততম টেস্টে ইতিমধ্যে চালকের আসনে বসেছে বাংলাদেশ। পারফর্মেন্স দিয়েই নিজের অভিষেক ম্যাচটি স্মরণীয় করে রাখতে হবে এই তরুণকে।


মন্তব্য