kalerkantho


তুমুল ঝগড়ায় মেতেছে অস্ট্রেলিয়া ও ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৯ মার্চ, ২০১৭ ১৭:২৮



তুমুল ঝগড়ায় মেতেছে অস্ট্রেলিয়া ও ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড!

ডিআরএস বা ডিসিশন রিভিউ সিস্টেম নিয়ে তুলকালাম শুরু হয়েছে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া (সিএ) এবং ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই) এর মধ্যে! দুদেশের বোর্ড প্রকাশ্য যুদ্ধে নেমে পড়েছে। যা নজিরবিহীন! অতীতে দুদেশের অধিনায়ক বা ক্রিকেটারদের মধ্যে ঝামেলার ইতিহাস অনেক আছে।

কিন্তু একটি সিরিজকে কেন্দ্র করে বোর্ড বনাম বোর্ড সংঘাত দেখা যায়নি।  

দুই বোর্ডের এই লড়াইয়ে প্রথম শটটি নেয় কোহালিদের বোর্ড। বেঙ্গালুরুতে ড্রেসি‌ংরুম থেকে স্টিভ স্মিথের ডিআরএসের সাহায্য চাওয়াকে কটাক্ষ করে তারা মঙ্গলবারেই নিজেদের সরকারি ওয়েবসাইটে শিরোনাম দিয়ে দেয়, 'ডিআরএস: ড্রেসিংরুম রিভিউ সিস্টেম'। তা নিয়ে অস্ট্রেলিয়ার সংবাদমাধ্যমে তীব্র লেখালেখি শুরু হয়।

সম্ভবত তারই জেরে স্মিথের পাশে জোরালো ভাবে দাঁড়িয়ে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার সিইও জেমস সাদারল্যান্ড পাল্টা বিবৃতি দিয়েছেন। তিনি কোহালির বক্তব্যকে 'অসংযত' আখ্যা দিয়েছেন। বিবৃতিতে তিনি বলেছেন, "স্টিভ স্মিথ অসাধারণ এক ক্রিকেটার। অনেক উঠতি ক্রিকেটারের কাছে রোল মডেল। ওর ওপর আমাদের সম্পূর্ণ আস্থা আছে যে, অনৈতিক কিছু ইচ্ছাকৃত ভাবে ও করবে না।

কোহালির মন্তব্য আমাদের অসংযত মনে হয়েছে। অস্ট্রেলিয়া খেলার মধ্যে ক্রিকেটের স্পিরিট-বিরোধী কিছু করবে না। "

সাদারল্যান্ডের বিবৃতির কিছুক্ষণের মধ্যেই সাংবদমাধ্যমের কাছে পাল্টা ইমেইল পাঠায় ভারতীয় বোর্ড। তাতে কোহালিকে সমর্থন করে তারা লেখে, "ভারতীয় বোর্ড সম্পূর্ণ ভাবে কোহালির পাশে রয়েছে। আমরা আইসিসি-কে ঘটনা খতিয়ে দেখতে বলেছি কেন স্মিথ ড্রেসিংরুম থেকে ডিআরএস নিয়ে সাহায্য নিচ্ছিলেন। " 

এখানেই শেষ নয়। নিজেদের বোর্ডের সরকারি ওয়েবসাইটকে হাতিয়ার করে চেতেশ্বর পূজারা ও আর রবিচন্দ্রন অশ্বিন একটি ভিডিও প্রকাশ করেছেন বুধবার। সেখানে স্মিথের ঘটনা নিয়ে অশ্বিন বলেন, "শেষবার এমন দেখেছি অনূর্ধ্ব-১০ ক্রিকেট খেলার সময়। " এমনকী, পূজারার মতো শান্ত স্বভাবের ক্রিকেটারও ভিডিও বার্তায় বলেছেন, কীভাবে তিনি ওয়ার্নারকে স্লেজ করেছেন। অস্ট্রেলীয় মিডিয়া এই ভিডিওটি ইস্যু করে লিখেছে, স্মিথের দলকে চূড়ান্ত ভাবে অপমান করছে ভারতীয় দল আর কোহালিদের বোর্ড সেই পদক্ষেপে তাদের মদদ দিচ্ছে।

কে বলবে, আর ক’দিন পরে স্মিথের অধিনায়কত্বেই আইপিএলে একই ফ্র্যাঞ্চাইজির হয়ে খেলতে নামবেন অশ্বিন! পুনে সুপারজায়ান্টস এখন তাদের মাথাতেই নেই। সবাই মেতে উঠেছে ঝগড়ায়! ভারতের বক্তব্য, "অস্ট্রেলীয় মিডিয়া সবসময় ভারতকে আক্রমণ করছে; আমরা কি চুপ করে বসে থাকব?" অন্যদিকে অজিদের বক্তব্য, "ভারতই প্রথম সৌজন্য লংঘন করেছে। আমরা কম যাব কেন?" আপাতত এই পর্যায়ে এসে দাঁড়িয়েছে দুই দেশের ক্রিকেট বোর্ডের সম্পর্ক!


মন্তব্য