kalerkantho


২৮১ রানে পিছিয়ে থেকে লাঞ্চে গেল বাংলাদেশ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৯ মার্চ, ২০১৭ ১২:৪৮



২৮১ রানে পিছিয়ে থেকে লাঞ্চে গেল বাংলাদেশ

দ্বিতীয় দিনের খেলা শেষে কোচ চন্দ্রিকা হাথুরুসিংহে বলেছিলেন, শিষ্যরা সাড়ে ৫শ রান করতে পারলেই তিনি খুশি। যদিও এই মাঠে সর্বোচ্চ দলীয় স্কোরের রেকর্ড আছে বাংলাদেশের। কিন্তু তৃতীয় দিনটা স্বপ্নের মতো হলো না টাইগারদের জন্য। লাঞ্চের আগে ৬টি গুরুত্বপূর্ণ উইকেট হারিয়ে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৪৯৪। স্বাগতিকদের চেয়ে ২৮১ রানে পিছিয়ে মুশফিকরা। সাড়ে ৫শ রান তো এখন দিবাস্বপ্নের মতো। তরুণ মেহেদী মিরাজকে নিয়ে একাই লড়াই করছেন অধিনায়ক মুশফিক।

যদিও ক্রিকেট অনিশ্চয়তার খেলা, অনেক কিছুই হতে পারে। মুশফিক একটা সেঞ্চুরি হাঁকাতে পারেন। মিরাজও পারেন ব্যাটিংয়ে চমক দেখাতে। কিন্তু সত্য এটাই যে, শেষ দুই স্বীকৃত ব্যাটসম্যান মাহমুদ উল্লাহ রিয়াদ এবং লিটন দাস ফিরে গেছেন।

তরুণ মেহেদী মিরাজ মুশফিককে কতটা সঙ্গ দিতে পারবেন সেটা অনিশ্চিত। লঙ্কানদের প্রায় ৫০০ রানের জবাবে ৬ উইকেটে ২০০ রান তুলেছে বাংলাদেশ।

সাকিবের বিদায়ের পর দ্রুতই ফিরে যান মাহমুদ উল্লাহ রিয়াদ। তার ব্যাটে রানখরা যেন কাটছেই না। দলীয় ১৮৪ রানে লাহিরু কুমাররা দারুণ এক ইয়র্কারের সরাসরি বোল্ড হয়ে যান ২৬ বলে ৮ রান করা রিয়াদ। মাত্র ৮ রানের ব্যবধানে অধিনায়ক রঙ্গনা হেরাথের প্রথম শিকারে পরিণত হন অনেকদিন পর দলে সুযোগ পাওয়া উইকেট কিপার ব্যাটসম্যান লিটন দাস। হেরাথের বলে গুনারত্নের হাতে ক্যাচ দেন ১৩ বলে ৫ রান করা লিটন।

এর আগে দিনের শুরুতে সৌম্য সরকারের উইকেট হারায় বাংলাদেশ। বাংলাদেশকে আশা দেখাচ্ছিল তার সাবলীল ব্যাটিং। দ্বিতীয় দিনে শেষে ৬৬ রানে অপরাজিত থাকা সৌম্য আজ ১৩৭ বলে ৮ চার এবং ১ ছক্কায় ৭১ রান করে লাকমলের শিকার হন। লাকমলের শর্ট বলটি বিভ্রান্ত করে সৌম্যকে। একটু মনযোগ হারিয়ে ফেলেন তিনি। বলটি ছেড়ে দিতে গিয়েও কী মনে করে আবার পুল করে বসেন। দিলরুয়ান পেরেরা ক্যাচটি তালুবন্দী করতে ভুল করেননি।

সৌম্যর পর আক্রমণাত্বক হতে গিয়ে বাজে বলে উইকেট বিলিয়ে আসেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। তিনি ১৯ বলে ২৩ রান করে আউট হন।  সান্দাকানের বলটি ফাইন লেগ দিয়ে পাঠাতে চেয়েছিলেন তিনি। কিন্তু ব্যাটের কানায় লেগে তা চলে যায় কিপার ডিকাভিলার হাতে। মুশফিক আর মিরাজ কি পারবেন একটা চমক দেখাতে? দুর্দান্ত একটা জুটি গড়ে নতুন ইতিহাস তৈরী করতে?


মন্তব্য