kalerkantho


ধোনি যেন অস্তমিত সূর্য

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৪ মার্চ, ২০১৭ ০৪:১২



ধোনি যেন অস্তমিত সূর্য

ব্যাট হাতে বাইশ গজে নামবেন ধোনি। ধোনি-ধামাকা'র অপেক্ষায় সকাল থেকে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় ক্রীড়াঙ্গনে উপচে পড়া ভিড়। বাঁশের ব্যারিকেড ভাঙল, উত্তাল হল মাঠ, কিন্তু ধোনি-ধামাকা দেখার স্বাদ অপূর্ণই থেকে গেল। ৪৭ বলে ২৮ রান ধোনির মতো গ্লামারাস ক্রিকেটারের নামের পাশে যে বড়ই বেমানান। বোঝা গেল, বাইশ গজে ধোনির মহেন্দ্রক্ষণ শেষের পথে। মহেন্দ্র সিং ধোনি যেন অস্তমিত সূর্য।

দক্ষতায় যে মরচে ধরেছে, ইঙ্গিতটা বেশ কিছুদিন আগেই পাওয়া গেছে। বলের লাইনে শরীরটা ঠিকঠাক নিয়ে যেতে পারছেন না, ক্রিজ ছেড়ে বেরিয়ে এসেও টাইমিং হচ্ছে না। বয়স থাবা বসিয়েছে, বিষয়টা দিনের আলোর মতোই পরিষ্কার। যে বল মাঠের বাইরে পাঠানোর কথা, সেই বল কিনা বাউন্ডারি পার হচ্ছে না।  

পুরনো ধোনি হলে নিশ্চিতভাবেই হায়দরাবাদের মতো দলের কাছে ঝাড়খণ্ডকে হেরে বিজয় হাজারে ট্রফির মূলপর্বে ওঠার জন্য অনিশ্চয়তায় ভুগতে হতো না।

না হলে কি আর ২০৩ রান তাড়া করে ২১ রানে হারতে হয় ঝাড়খণ্ডকে। সৌরভ তেওয়ারির দুরন্ত ব্যাটিংও বাঁচাতে পারল না দলের হার।

ধোনি ফিরতেই মাঠও অর্ধেক ফাঁকা। ছাত্র-ছাত্রীদের ফিরিয়ে নিয়ে গিয়ে যে শিক্ষকরা যে ক্লাস নেবেন, সে সময় আর ছিল না। তখন তো পড়ন্ত বিকেল, সূর্য পশ্চিম কোণে ঢলে পড়েছে, ধোনির ক্রিকেটজীবনের সায়াহ্নে পৌঁছনোর মতোই।  


মন্তব্য