kalerkantho


শেরপুরে গুলশান ইয়ুথকে ১০ উইকেটে হারালো অ্যামেচার্স

শেরপুর প্রতিনিধি    

৩ মার্চ, ২০১৭ ২১:১৭



শেরপুরে গুলশান ইয়ুথকে ১০ উইকেটে হারালো অ্যামেচার্স

শেরপুরে ঢাকার গুলশান ইয়ুথ ক্লাবকে ১০ ইউকেটে পরাজিত করেছে অ্যামেচার্স ক্লাব। শেরপুর অ্যামেচার্স ক্লাবের আমন্ত্রণে স্থানীয় শহীদ মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতি স্টেডিয়ামে আজ শুক্রবার এ ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হয়।

নির্ধারিত ৩০ ওভারের খেলায় সকালে টস হেরে গুলশান ইয়ুথ ক্লাব প্রথমে ব্যাট করে ২৮ দশমকি ৪ ওভারে ১১৩ রানে অলআউট হয়। জবাবে ব্যাট করতে নেমে শেরপুর অ্যামেচার্স ক্লাব কোনও উইকেট না হারিয়ে ২১ দশমিক ৩ ওভারে ১১৫ রান তুলে ১০ উইকেটে জয়লাভ করে।

অ্যামেচার্স ক্লাবের ইনিংসের সময় উদ্বোধনী দুই ব্যাটসম্যান সাব্বির (৪৪ রান ) ও অনিক (৪১ রান) অপরাজিত অবস্থায় শেষদিকে অবসর নিয়ে মাঠ ছাড়েন। খেলা শেষে বিজয়ী ও বিজিত দল এবং খেলোয়াড়দের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন পৌর মেয়র গোলাম মোহাম্মদ কিবরিয়া লিটন। এর আগে জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান হুমায়ুন কবীর রুমান দুই দলের খেলা উপভোগ করেন। এ সময় জেলা ক্রীড়া সংস্থার অতিরিক্ত সাধারণ সম্পাদক মানিক দত্ত, জেলা আওয়ামী লীগের সাংস্কৃতিক সম্পাদক আনিসুর রহমান, অ্যামেচার্স ক্লাবের অধিনায়ক জাকির হোসেন বাচ্চু, গুলশান ইয়ুথ ক্লাবের অধিনায়ক মেহেদী প্রমুখ বক্তব্য দেন। খেলায় অ্যামেচার্স ক্লাবের সহ-অধিনায়ক মোতাহারুল ইসলাম শিপন 'ম্যান অব দি ম্যাচ', সাব্বির 'সেরা ব্যাটসম্যান' ও 'সেরা ক্যাচ', শরন 'সেরা বোলার' ও  'সেরা ছক্কা', সোহেল 'সেরা ফিল্ডার', গুলশান ইয়ুথ ক্লাবের কায়সার 'সর্বোচ্চ ছক্কা'র পুরস্কার লাভ করেন। তাদেরকে ট্রফি ও নগদ অর্থ পুরস্কার প্রদান করা হয়। এ ছাড়া উভয় দল এ প্রীতি ম্যাচ উপলক্ষে একে অপরকে ক্রেস্ট ও উপহার সামগ্রী প্রদান করেন।

উল্লেখ্য, গত তিন বছর ধরে শেরপুর অ্যামেচার্স ক্লাব ও গুলশান ইয়ুথ ক্লাব 'হোম অ্যান্ড অ্যাওয়ে' ভিত্তিতে এ প্রীতি ক্রিকেট ম্যাচের আয়োজন করে আসছে। গত ফেব্রুয়ারিতে ঢাকার গুলশান ইয়ুথ ক্লাব নিজেদের মাঠে শেরপুর অ্যামেচার্স ক্লাবকে পরাজিত করেছিল।

সংক্ষিপ্ত স্কোর : গুলশান ইয়ুথ ক্লাব-১১৩/১০, ২৮.৪ ওভার (অনিক ৩৮, কায়সার ২৬ অতি: ১৩, শরণ ৩/২৫, শিপন ২/১৬, সনিক ২/৩২)। শেরপুর অ্যামেচার্স ক্লাব-১১৫/০, ২১.৩ ওভার (সাব্বির ৪৪, অনিক ৪১, শিপন ১০, অতি: ১৬, কালাম ০/২৯), শেরপুর অ্যামেচার্স ক্লাব ১০ উইকেটে জয়ী। ম্যান অব দি ম্যাচ-শিপন (অ্যামেচার্স ক্লাব)।    

 


মন্তব্য