kalerkantho


যে কারণে অবসর নিতে বাধ্য হয়েছিলেন শচীন টেন্ডুলকার

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৩ মার্চ, ২০১৭ ১৫:১৫



যে কারণে অবসর নিতে বাধ্য হয়েছিলেন শচীন টেন্ডুলকার

ক্রিকেটের মহানায়ক তিনি। বলা হয়ে থাকে একালের ব্র্যাডম্যান। দীর্ঘসময় ক্রিকেট খেলেছেন শচীন টেন্ডুলকার। এরপর ২০১৩ চ্যাম্পিয়ন্স লিগের পর  কলকাতা আর মুম্বাইতে শেষ দুটি টেস্ট খেলে অবসর নেন মাস্টার ব্লাস্টার। কেন ছিল সেই অবসর? বয়সের স্বাভাবিক নিয়মে; নাকি অন্য কোনো কারণ? অবসর নেওয়ার ৪ বছর পর সোশ্যাল মিডিয়ায় ফাঁস করলেন ক্রিকেট ঈশ্বর।

শচীন লিখেছেন, "সময়টা ছিল ২০১৩ সালের অক্টোবর। দিল্লিতে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ম্যাচ চলছিল। আমার সকালটা কাটে জিমে। গত ২৪ বছর ধরে এই রুটিনটাই মেনে আসছি। কিন্তু অক্টোবরের সেই সকালে একটা জিনিস বদলে গিয়েছিল। "

শচীন আরও লিখেছেন, "বুঝতে পারছিলাম যে সকালে উঠে নিজের প্রতিদিনের রুটিন অনুযায়ী কাজ করতে ইচ্ছে করছে না।

কাজে যাওয়ার জন্য আমাকে জোর করতে হচ্ছে। জানতাম জিম করাটা আমার ক্রিকেটের একটা গুরুত্বপূর্ণ অংশ। কিন্তু তবু কেন একটা অনিচ্ছা চেপে ধরল সে দিন? তখনই মনে হয় যে, তাহলে আমার থামার সময় হয়েছে। প্রিয় খেলাটাকে এবার হয়তো প্রতিদিনের রুটিন থেকে বাদ দেওয়ার সময় এসে গেছে!"

শরীর সেদিন বিদ্রোহ করাতেই অবসরের সিদ্ধান্ত নিয়ে নেন শচীন। যদিও এর আগে থেকেই মিডিয়ায় তার অবসর নিয়ে আলোচনা-সমালোচনা শুরু হয়েছিল। কিন্তু কোনোকালেই এসব সমালোচনার ধার ধারেননি শচীন। শেষ পর্যন্ত বীরের মতই কোটি কোটি ভক্তের ভালোবাসায় সিক্ত হয়ে ক্রিকেটকে বিদায় জানিয়েছিলেন এই জীবন্ত কিংবদন্তি।


মন্তব্য