kalerkantho


ওকেফিকে থামানোর পরিকল্পনা করছে ভারত

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ১৬:৪০



ওকেফিকে থামানোর পরিকল্পনা করছে ভারত

দুদিন আগেও যাকে একাদশে থাকা নিয়ে ভাবতে হতো, সেই ওকেফিই কিনা এখন বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিশালী ব্যাটিং লাইনআপ সমৃদ্ধ ভারতের দুশ্চিন্তার কারণ! খেলায় হারজিত হতেই পারে, কিন্তু বড় বড় কথা বলার পর পরাজিত হওয়াটা অপমানজনক বটে। আর এই অপমানের ক্ষতটা বেশি গভীর এবং তীব্র যন্ত্রণার।

কিন্তু এই দুঃস্বপ্নকে ঝেড়ে ফেলে নতুন জীবন শুরু করতে হবে বিরাট কোহালিদের। তার জন্য প্রথমেই থামাতে হবে দুর্দান্ত ফর্মে থাকা ওকেফিকে।

পুনে টেস্টের ঘূর্ণি উইকেটে নিখুঁত এবং নিয়ন্ত্রিত লাইন-লেংথে বল করেছেন স্টিভ ওকেফি। কিন্তু তার কিন্তু অনেক বলই স্পিন করেনি! ভারতীয় ব্যাটসম্যানরা ভুল বুঝে এবং ভুল লাইনে ওকেফিকে খেলেই নাকি বিপদে পড়েছে। সেই সঙ্গে ওকেফির বলে ফুটওয়ার্ক যেন ভুলে গিয়েছিল ব্যাটসম্যানরা। ৩ দিনে ম্যাচ হারের পর পারফর্মেন্স কাঁটাছেড়ায় এসব সমস্যা বেড়িয়ে আসছে। সমস্যা বের হলেই বের হবে সমাধান।

তবে ব্যাঙ্গালুরুতে ৪ মার্চ অনুষ্ঠিতব্য ম্যাচের জন্য নিশ্চয়ই পুনের মত ভয়াবহ ঘূর্ণি উইকেট তৈরি করবে না ভারত। যা দেখে শেন ওয়ার্ন বলে বসবেন যে, 'এটা অষ্টম দিনের উইকেট'।

গত ম্যাচে সিদ্ধান্ত নিতে বেশ কয়েকবার তালগোল পাকিয়েছেন নবনিযুক্ত ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি। দুইবার রিভিউ নিয়ে মুশফিকের মত হাসির পাত্র হয়েছেন। এছাড়া ফিল্ডিং নিয়েও সন্তুষ্ট নন ক্রিকেট বিশ্লেষকরা।

বিশ্বের দুই সেরা স্পিনারের বিরুদ্ধে কীভাবে খেলবে, সেটা ঠিক করে নিয়ে নেমেছিল স্মিথ। এবং নিজের রণনীতি অনুযায়ী খেলেই সাফল্য পান তিনি। অমন ভয়াবহ উইকেটে ব্যাট করে তুলে নেন সেঞ্চুরি।  কিন্তু ভারতীয় ব্যাটসম্যানরা উইকেটের কথা না ভেবেই নাকি রান তুলতে ব্যস্ত হয়। যার ফল প্রথম ইনিংসে ১০৫ এবং দ্বিতীয় ইনিংসে ১০৭। তবে ওকেফি ছাড়াও ভারতকে কিন্তু অস্ট্রেলিয়ার বাকি বোলারদের কথা মাথায় রাখতে হবে। মিচেল স্টার্ক, জস হ্যাজলউড, নাথন লায়ন— এরা সবাই কিন্তু নিজের নিজের দিনে ম‌্যাচ জেতানোর ক্ষমতা রাখে।  


মন্তব্য