kalerkantho


টেন্ডুলকারের বার্তা; গাভাস্কারের ক্ষোভ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ১৫:১০



টেন্ডুলকারের বার্তা; গাভাস্কারের ক্ষোভ

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে প্রথম টেস্টে মাত্র তিন দিনের মধ্যেই ৩৩৩ রানের বড় ব্যবধানের পরাজয় এখন সারা বিশ্বজুড়েই আলোচিত-সমালোচিত ভারতীয় শক্তিশালী ব্যাটিং লাইনআপ। সাবেক ভারত অধিনায়ক ও ক্রিকেট বিশ্বের কিংবদন্তি ব্যাটসম্যান শচীন টেন্ডুলকার উত্তরসূরিদের এই বাজে পারফর্মেন্সে এখনই হতাশ নন। তাই কোহলি ও তার সতীর্থদের উজ্জীবিত করার জন্যই বার্তা পাঠিয়েছেন লিটল মাস্টার।  

গত দুই বছরে ভারতের ব্যাটিংয়ে এত বাজে পারফর্মেন্স দেখা যায়নি, এটা অধিনায়ক কোহলি নিজেও ম্যাচ-পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে অকপটেই স্বীকার করেছেন। বিশ্বের ১ নম্বর টেস্ট দলটি প্রথম ইনিংসে ১০৫ রানে গুটিয়ে যাবার পরে দ্বিতীয় ইনিংসে করেছে মাত্র ১০৭ রান। এর ফলে চার ম্যাচের সিরিজে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে গেছে সফরকারী অস্ট্রেলিয়া।

কোহলির ক্রিকেটীয় আইডল টেন্ডুলকার বলেছেন, "একটি পরাজয়ে বড় একটি সিরিজের সার্বিক ফলাফল হতে পারে না। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে প্রথম ম্যাচটি আমাদের জন্য সত্যিকার অর্থেই কঠিন ছিল। কিন্তু এটা খেলারই একটি অংশ, এমন হতেই পারে। প্রথম টেস্টে পরাজয়ের অর্থ এই নয় যে আমরা সিরিজ হেরে গেছি। সিরিজে এখনো আমাদের সুযোগ আছে।

ভারতের বর্তমান দলটি স্পিরিট সম্পর্কে আমি জানি। আমি জানি তারা সবাই কঠিন লড়াই করেই ফিরে আসবে। অস্ট্রেলিয়ান দলও এটা জানে। আমি নিঃসন্দেহে বলতে পারি, পরের ম্যাচগুলোতে ভারত ভালোভাবেই লড়াইয়ে ফিরবে। "

যদিও টেন্ডুলকারের মতো এতটা আশাবাদী মনোভাব পোষণ করেননি ভারতের আরেক কিংবদন্তি ব্যাটসম্যান সুনীল গাভাস্কার। তিনি বলেন, "চা বিরতির পর মাত্র আধাঘণ্টার মধ্যে অল-আউট হয়ে যাওয়া অবিশ্বাস্য। ভারতীয় ব্যাটসম্যানরা কিছুটা খামখেয়ালি করেছে। তাদের বোঝা উচিত ছিল টেস্টে উইকেটে টিকে থাকাটা জরুরি। "

তিনি আরো বলেন, "আমার মনে পড়ে না বিগত কয়েক বছরে মাত্র আড়াই দিনে ভারত কবে টেস্ট ম্যাচ হেরেছে। অস্ট্রেলিয়ান স্পিনারদের ভারতীয় ব্যাটসম্যানরা যেভাবে মোকাবিলা করেছে তা কিছুটা বিস্ময়কর। আমি দলটির মানসিকতা দেখে হতাশ। দুই ইনিংসে ৭৫ ওভারে অল-আউট হওয়া কোনোভাবেই মেনে নেওয়া যায় না। ভারতীয় দলের এটা অন্যতম বাজে পরাজয়। "


মন্তব্য