kalerkantho


যে কারণে অধিনায়কত্ব হারাতে হলো ধোনিকে

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ১৫:৫৮



যে কারণে অধিনায়কত্ব হারাতে হলো ধোনিকে

গতকাল রবিবার ক্রিকেট দুনিয়ায় বোমা ফাটার মতো খবর এসেছিল যে, সাবেক ভারত অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনিকে ক্যাপ্টেনসি থেকে অব্যাহতি দিয়েছে আইপিএলের দল পুনে। কিন্তু কেন সরিয়ে দেওয়া ধোনিকে?‌ আইপিএল নিলামের আবহে এটাই সবথেকে বড় প্রশ্ন।

ফ্র্যাঞ্চাইজির মালিক সঞ্জীব গোয়েঙ্কা বলেছেন, ফ্র্যাঞ্চাইজির স্বার্থেই এই সিদ্ধান্তটা নিতে হয়েছে।

সূত্রের খবর, নানা কারণে ধোনির ওপর বিরক্ত ছিলেন ফ্র্যাঞ্চাইজি কর্তারা। তার অন্যতম কারণ হলো, ফোনে ধোনিকে পাওয়া যেত না। সঞ্জীব গোয়েঙ্কা নিজেও বেশ কয়েকবার তার সঙ্গে আলোচনা করতে গিয়েও ফোনে ধরতে পারেননি। তিনি যে ধোনিকে ফোনে পেতেন না, এ কথা নিজেও এক সাক্ষাৎকারে মেনে নিয়েছেন। যিনি টাকা ঢালবেন, তিনিও যদি অধিনায়ককে ধরতে না পারেন, রাগ হওয়া স্বাভাবিক।

পুনে ফ্র্যাঞ্চাইজি সূত্রে জানা গেছে, ধোনির সঙ্গে কোনো আলোচনাই করা যেত না। যা বলার তার এজেন্টকে বলতে হতো। এটা মেনে নিতে পারেনি দলটির কর্তৃপক্ষ।

মাঠের বাইরের নানা বিষয় নিয়ে ধোনি নিজের মতামত চাপিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করেন। যেমন জার্সির রং কী হবে, লোগো কী হবে, ইত্যাদি। এই বিষয়টিকেও ভালো চোখে দেখেনি ফ্র্যঞ্চাইজিটি। তাদের দাবি ছিল, মাঠের ভেতরটা অধিনায়ক দেখবেন। কিন্তু বাইরের দিকটা দেখবে ফ্র্যাঞ্চাইজি।  বিভিন্ন ক্রিকেটারদের ব্যবহার করা নিয়েও ধোনির সঙ্গে কর্তাদের ভুল বোঝাবুঝি প্রকট হয়ে উঠেছিল।

সূত্রের দাবি, ইংল্যান্ড সিরিজ চলাকালীন ধোনি কলকাতায় এসে সঞ্জীব গোয়েঙ্কার বাড়িতে যান। তখনই তাকে কিছুটা ইঙ্গিত দেওয়া হয় কেন তাকে নেতৃত্ব থেকে সরানো হতে পারে। পরে ধোনিকে বিস্তারিতভাবে বলেন পুনের এক কর্মকর্তা। ধোনি নাকি স্বাভাবিকভাবেই মেনে নিয়েছেন। বলেছেন অধিনায়ক হিসেবে স্টিভ স্মিথ ভালো বিকল্প। পেশাদার ক্রিকেটার হিসেবে তার যা দায়িত্ব তিনি পালন করবেন।


মন্তব্য