kalerkantho


জোড়া সেঞ্চুরিতে চ্যালেঞ্জের মুখে বাংলাদেশ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ১৭:১৬



জোড়া সেঞ্চুরিতে চ্যালেঞ্জের মুখে বাংলাদেশ

হায়দরাবাদের ব্যাটিং স্বর্গে বড় স্কোর নিয়েই সুবিধাজনক অবস্থানে থেকে প্রথম দিন শেষ করল স্বাগতিক ভারত। টসে জিতে ব্যাটিং নেওয়ার সিদ্ধান্তটা যে কতটা সঠিক ছিল তা আর বলার অপেক্ষা রাখেনা।

ক্যাচ মিস আর রান আউট মিসের পরও বাংলাদেশের বোলাররা তিনটি গুরুত্বপূর্ণ উইকেট তুলে নিয়েছে। তারপরও মুরালি বিজয় আর বিরাট কোহলির জোড়া সেঞ্চুরিতে ভর করে দিনশেষে ভারতের সংগ্রহ ৩ উইকেটে ৩৫৬ রান। দুই অপরাজিত ব্যাটসম্যন বিরাট কোহলি ১১১ রান এবং আজিঙ্কা রাহানে ৪৫ রানে দিন শেষ করেছেন।

দিনের শুরুতে দারুণ কিছুর ইঙ্গিত দিয়েছিল টাইগাররা। প্রথম ওভারেই লোকেশ রাহুলের স্ট্যাম্প ছত্রখান করে দেন তাসকিন আহমেদ। এটাই শেষ নয়, টাইগার বোলারদের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে বেশ চাপে পড়ে যায় ভারত। মেহেদী মিরাজের বলে ক্যাচ উঠে দুটি। কিন্তু সাকিব আল হাসানের সৌজন্যে বেঁচে যান চেতেশ্বর পুজারা এবং মুরালি বিজয়। এরপর মুরালি বিজয়ের একটি সহজ রানআউট মিস করেন মেহেদী মিরাজ।

যে কারণে এই দুজন মিলে দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে ১৭৮ রানের জুটি গড়েন। সেই মেহেদী মিরাজই অবশেষে ভাঙেন এই জুটি। ৮৩ রান করে সাজঘরে ফিরেন পুজারা। কিন্তু এই স্বস্তি স্থায়ী হয়নি বেশিক্ষণ।

দুইবার জীবন পাওয়া মুরালি বিজয় সেঞ্চুরি তুলে নেন। ১৪৯ বলে ১১টি চার এবং ১টি ছক্কায় তিনি তিন অংকের ম্যজিক ফিগারে পৌঁছান। ১০৮ রান করে তিনি শিকার হন অপর স্পিনার তাইজুল ইসলামের। এরপর ক্রিজে এসেই স্বভাবসুলভ ব্যাটিং তাণ্ডব শুরু করেন ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি। আজিঙ্কা রাহানেকে নিয়ে তিনি দলকে এগিয়ে নিয়ে যেতে থাকেন। দয়ামায়াহীন ভাবে ব্যাট চালিয়ে সেঞ্চুরি পূরণ করেন বিশ্বের ভয়ঙ্করতম এই ব্যাটসম্যান। ১৩০ বলে ১০ বাউন্ডারির সাহায্যে তিন অংকে পৌঁছান কোহলি। চুতর্থ উইকেটে আজিঙ্কা রাহানের সঙ্গে তার জুটি দিনশেষে ১২২ রানের। বাংলাদেশের জন্য দিনটা হতাশাতেই কাটল। ম্যাচের দ্বিতীয় দিনে দ্রুত উইকেট তুলে নেওয়াই হবে মুশফিক বাহিনীর মূল লক্ষ্য।


মন্তব্য