kalerkantho

সোমবার । ৫ ডিসেম্বর ২০১৬। ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৪ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


স্পিনের জবাব স্পিনে দিচ্ছে ইংল্যান্ড

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২১ অক্টোবর, ২০১৬ ১২:১০



স্পিনের জবাব স্পিনে দিচ্ছে ইংল্যান্ড

ইংল্যান্ড প্রথম ইনিংসে ২৯৩ রানে অল আউট। সবক'টি উইকেট বাংলাদেশের স্পিনারদের।

স্পিনের জবাব চট্টগ্রামে স্পিনেই দিতে শুরু করেছে ইংল্যান্ড। দ্বিতীয় দিনে লাঞ্চের আগে শেষ ওভারে অফ-স্পিনার মঈন আলি জোড়া আঘাত হেনেছেন। চার বলের মধ্যে তুলে নিয়েছেন ইমরুল কায়েস (২১) ও মুমিনুল হকের (০) উইকেট। কোনো উইকেট না হারিয়ে ২৯ রান ছিল বাংলাদেশের। তারা লাঞ্চে গেছে ২ উইকেটে ২৯ রান নিয়ে।

এর আগে দ্বিতীয় দিনের সকালে তাইজুল ইসলাম ও অভিষিক্ত মেহেদী হাসান মিরাজের বোলিংয়ে গুটিয়ে যায় ইংল্যান্ডের প্রথম ইনিংস। বাঁ হাতি স্পিনার তাইজুল আগের দিন ৩৬ বলে ৩৪টি ডট দিয়েছিলেন। ১৭ ওভারের ৮টি ছিল মেডেন। রান দিয়েছিলেন সাকুল্যে ২৮। ফিল্ডার মিস না করলে একটি উইকেট পেতেই পারতেন। কিন্তু কোনো উইকেট না নিয়ে প্রথম দিন শেষ করার আক্ষেপটা দ্বিতীয় দিন সকালে মাঠে পা রেখেই মিটিয়েছেন তাইজুল। তার ঘূর্ণিতেই দ্বিতীয় দিনের সকালে ধুঁকতে ধুঁকতে ২৯৩ রানে অল আউট হয়েছে ইংলিশরা। তাইজুল নিয়েছেন ২ উইকেট। বাকিটা মেহেদীর। দেশের পক্ষে অভিষেকে দ্বিতীয় সেরা বোলিংয়ের কীর্তি তার।

৭ উইকেটে ২৫৮ রান নিয়ে চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে এই দিন শুরু ইংল্যান্ডের। ৩৬ রানে দাঁড়ানো ক্রিস ওকসের ৯টি ও ৫ রানে থাকা আদিল রশিদের ১০টি ফার্স্ট ক্লাস সেঞ্চুরি আছে। এমন অল-রাউন্ডারের দলকে আরেকটি ধাক্কায় দ্রুত অল আউট করা যাবে তো? এই প্রশ্ন সামনে রেখে মুশফিকুর রহিমের দল মাঠে। এবং দিনের প্রথম বলেই তাইজুলকে খেলতে গিয়ে না বুঝে মুমিনুল হককে ক্যাচ দিয়ে দিলেন ওকস।

আগের দিনে অভিষেকে ৫ উইকেট নিয়ে ইংলিশদের বড় ক্ষতি করা মেহেদী হাসান মিরাজ অন্য প্রান্তে চাপ বাড়িয়েছেন। লাভটা তুলেছেন তাইজুল। আরো ৩১ রান পর তাইজুলকে তুলে মারলেন আদিল (২৬)। কভারে অসম্ভব ক্ষিপ্রতায় দুর্দান্ত ক্যাচ নিয়েছেন সাব্বির রহমান।

তাইজুলের পরের ওভারেই ঠিক ২৯০ রানের সময় অল আউট হতে পারতো ইংল্যান্ড। আধুনিক প্রযুক্তি বাঁচিয়েছে তাদের। আগের দিন মঈন আলি তিনবার আউট হয়ে তিনবারই রিভিউ নিয়ে বেঁচেছিলেন। তাকে আউট দেওয়া আম্পায়ার ছিলেন লঙ্কান কুমার ধর্মসেনা। এদিন তার সিদ্ধান্তে ব্রড আউট তাইজুলের বলে। কিন্তু রিভিউতে ডিআরএসের কল্যাণে ব্রড নট আউট। ধর্মসেনাকে আবার সিদ্ধান্ত বদলাতে হয়!

তবে কিছুক্ষণের মধ্যে মেহেদী আঘাত হানেন। ব্রডকে (১৩) রিভিউতেই আউট করে অল আউট করেন ইংল্যান্ডকে। এটি মেহেদীর ষষ্ঠ উইকেট। অভিষেকে বাংলাদেশের দ্বিতীয় সেরা বোলিং ফিগারের ইতিহাস গড়ে প্রথম ইনিংস শেষ করলেন মেহেদী। ৩৯.৫ ওভারে ৮০ রানে ৬ উইকেট। ইকোনমি মাত্র ২! ১৮ বছরের বোলারের কি দারুণই না বোলিং!


মন্তব্য