kalerkantho


এমন কীর্তি রয়েছে আর ৬ বাংলাদেশির

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২০ অক্টোবর, ২০১৬ ২১:৫৬



এমন কীর্তি রয়েছে আর ৬ বাংলাদেশির

বাংলাদেশের সপ্তম বোলার হিসেবে অভিষেক টেস্টেই ৫ উইকেট শিকারের কৃতিত্ব দেখালেন অফ-স্পিনার মেহেদি হাসান মিরাজ। চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজের প্রথম টেস্টের প্রথম দিন ৬৪ রানে ৫ উইকেট নেন তিনি। ফলে রেকর্ড বইয়ে নিজের নাম লেখান ১৮ বছর বয়সী মিরাজ।
বাংলাদেশের হয়ে এর আগে এমন কীর্তি দেখিয়েছেন ছয়জন বোলার। এরা হলেন- নাইমুর রহমান দূর্জয়, মঞ্জুরুল ইসলাম, মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ, ইলিয়াস সানি, সোহাগ গাজী ও তাইজুল ইসলাম।
২০০০ সালে বাংলাদেশের অভিষেক টেস্টে ভারতের বিপক্ষে ১৩২ রানে ৬ উইকেট নেন দূর্জয়। পরের বছর বুলাওয়েতে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে নিজের অভিষেক ম্যাচে ৮১ রানে ৬ উইকেট শিকার করেন মঞ্জুরুল। এরপর এই তালিকায় দীর্ঘদিন কারও নাম উঠেনি।
তবে ২০০৯ সালে কিংস্টনে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ৫১ রানে ৫ উইকেট শিকার করে নিজের নাম লেখান মাহমুদুল্লাহ। এরপর ২০১১ ও ২০১২ সালে নিজেদের নাম তুলেন সানি ও সোহাগ। চট্টগ্রামে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ৯৪ রানে ৬ উইকেট শিকার করেন সানি। আর ঢাকায় ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ৭৪ রানে ৬ উইকেট নেন সোহাগ। আর এটি অভিষেক ম্যাচে কোন বাংলাদেশী বোলারের এখনও সেরা বোলিং ফিগার।
সোহাগের পর এই তালিকায় নাম উঠে তাইজুলের। ২০১৪ সালে কিংস্টনে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ১৩৫ রানে ৫ উইকেট নেন তাইজুল। এতোদিন এই তালিকায় সর্বশেষ খেলোয়াড় ছিলেন তাইজুলই। এবার নতুন যোগ দিলেন মিরাজ।
অভিষেক টেস্টে বাংলাদেশের হয়ে সেরা বোলিং ফিগার সোহাগের। সেটি মুছে সেরা বোলিং ফিগারের নজির গড়ার সুযোগ আছে মিরাজের সামনে। কারণ চট্টগ্রাম টেস্টের দ্বিতীয় দিন আবারো ইংল্যান্ডের বিপক্ষে বোলিং করার সুযোগ পাবেন মিরাজ। কারণ প্রথম ইনিংসে এখনো ৩ উইকেট বাকি আছে ইংলিশদের। ঐ ৩ উইকেটের ২টি শিকার করতে পারলেই বাংলাদেশের পক্ষে অভিষেক টেস্টে সেরা বোলিং ফিগারের রেকর্ড গড়তে পারবেন মিরাজ।


মন্তব্য