kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৮ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৭ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


সাকিব আর মঈনের অদ্ভুত রিভিউ লড়াই!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২০ অক্টোবর, ২০১৬ ১৩:২৪



সাকিব আর মঈনের অদ্ভুত রিভিউ লড়াই!

এমন ঘটনা কে কবে দেখেছেন। বারবার একজন ব্যাটসম্যানকে আম্পায়ার আউটের সিদ্ধান্ত দিচ্ছেন।

প্রতিবার সেই ব্যাটসম্যান রিভিউ নিচ্ছেন। এবং প্রতিবার আম্পায়ারকে সিদ্ধান্ত বদলে 'নট আউট' ঘোষণা করতে হচ্ছে! মঈন আলি সেই ভাগ্যবান ব্যাটসম্যান। দুর্ভাগা বোলার সাকিব আল হাসান। তারও চেয়ে দুর্ভাগা লঙ্কান আম্পায়ার কুমার ধর্মসেনা। প্রতিবার যে সিদ্ধান্ত বদলাতে হয়েছে তাকে।

চট্টগ্রামে চলছে প্রথম টেস্ট। ২১ রানে ৩ উইকেট হারানো ইংল্যান্ড জো রুট ও মঈন আলির ব্যাটিংয়ে প্রতিরোধ গড়ে ৩ উইকেটে ৮০ রান নিয়ে লাঞ্চে যায়। কিন্তু লাঞ্চের আগে ও পরে সাকিবের মাত্র ৬ বলের মধ্যেই তিনবার আউট হয়ে বেঁচেছেন মঈন। রিভিউ রক্ষা করেছে তাকে।

লাঞ্চের আগের ঘটনা। ২৬.৫ ওভার চলছে। সাকিবের বল মঈনের প্যাডে আঘাত হানে। এলবিডাব্লিউর আপিল বাংলাদেশের। ধর্মসেনা আঙুল তুলে মঈনের মৃত্যুদণ্ড ঘোষণা করলেন। ফ্রন্ট ফুটে সুইপ করা মঈন রিভিউ নেন। রিভিউ তার পক্ষে যায়।

লাঞ্চ সেরে ফিরে আসার পর তিন বলের মধ্যে দুইবার একই কাণ্ড। চরিত্র তিনজন একই। মঈন, সাকিব, ধর্মসেনা। আর টিভি আম্পায়ার এস রভি। ২৮.২ ওভার। মঈনের প্যাডে আবার সাকিবের বলের আঘাত। ধর্মসেনা আউট দেন। ডিআরএস এর শরণ নেন মঈন। ধর্মসেনাকে সিদ্ধান্ত পাল্টাতে হয়। বল বাইরে দিয়ে যেত!

২৮.৪ ওভার। আবার সুইপ মঈনের। আবার আপিল বাংলাদেশের। আবার সাকিবের বলে মঈনকে আউট দেন ধর্মসেনা। আবার রিভিউ নেন মঈন। আবার এস রভি নিশ্চিত বল যেত স্টাম্পের বাইরে থেকে। আবার ধর্মসেনাকে নিজের সিদ্ধান্ত বদলে বলতে হয় 'নট আউট'! টেস্ট এ এক অভূতপূর্ব ঘটনা! আরো মনে রাখতে হবে এর আগে মুশফিকুর রহিম তাইজুল ইসলামের বলে আউট নিশ্চিত হয়ে রিভিউ নিয়েছিলেন। তখনও ব্যাটসম্যানের নাম মঈন। কিন্তু সেবার আম্পায়ার আউটের সিদ্ধান্ত দেননি। রিভিউও বলে দেয়, মঈন নট আউট! ভাগ্যবান বটে মঈন!

কিন্তু এই সব ঘটনায় এটা পরিষ্কার, জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে স্পিনারদের বল এতটা ঘুরছে যাতে খেলোয়াড়-আম্পায়ার সবাই বিভ্রান্ত! বাংলাদেশ দলে স্পিনারের আধিক্য বলে বিষয়টা সুখেরও বটে। কিন্তু ইংল্যান্ড দলেও যে আদিল রশিদ, গ্যারেথ ব্যাটি ও মঈন আলি স্পিন করাবেন!


মন্তব্য