kalerkantho

মঙ্গলবার । ৬ ডিসেম্বর ২০১৬। ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৫ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


সাগরিকায় টাইগারদের সুখস্মৃতি একটিই!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৯ অক্টোবর, ২০১৬ ১৬:১৯



সাগরিকায় টাইগারদের সুখস্মৃতি একটিই!

দীর্ঘ বিরতির পর আগামীকাল বৃহস্পতিবার শক্তিশালী ইংল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্ট ম্যাচে মুখোমুখি হচ্ছে মুশফিক বাহিনী। ওয়ানডেতে বাংলাদেশ আমূল বদলে গেলেও টেস্টে খুব একটা লক্ষ্যনীয় পরিবর্তন ঘটেনি।

আবার মাঝে আছে প্রায় ১৫ মাস টেস্ট ক্রিকেটে বিরতি। যে কারণে চট্টগ্রামের সাগরিকায় জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামের ইংলিশদের মুখোমুখি হওয়ার আগে বোলিং কম্বিনেশন নিয়ে মাথা কুটছে টিম ম্যানেজমেন্ট। বাংলাদেশের ১৬ বছরের টেস্ট খেলার ইতিহাসে সুখস্মৃতি খুব একটা নেই। জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে তো মাত্র একটি জয়ের স্মৃতি; তাও আবার জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে।

২০১৪ সালের নভেম্বরে অনুষ্ঠিত সেই ম্যাচে বাংলাদেশ ১৮৬ রানের বিশাল ব্যবধানে জিম্বাবুয়েকে পরাজিত করে। প্রথম ইনিংসে দুই ওপেনার তামিম ইকবাল (১০৯) এবং ইমরুল কায়েস (১৩০) এর সেঞ্চুরির উপর ভর করে ৫০৩ রানের পাহাড় গড়ে বাংলাদেশ। এরপর জুবায়ের হোসেনের ৫ উইকেটে মুখ থুবড়ে পড়ে জিম্বাবুয়ে। জিম্বাবুয়ের দ্বিতীয় ইনিংসেও এই স্পিনার দুই উইকেট নেন। কিন্তু কোথায় হারিয়ে গেলেন জুবায়ের! দ্বিতীয় ইনিংসে টেস্ট স্পেশালিস্ট খ্যাত ম্যাচসেরা মুমিনুল হকের সেঞ্চুরি (১৩১) এবং তামিমের ৬৫ রানের ইনিংসটি জিম্বাবুয়েকে হার মানতে বাধ্য করে। সাগরিকায় সেই একটাই জয় বাংলাদেশের! সেই সিরিজে জিম্বাবুয়েকে ৩-০ তে হোয়াটওয়াশ করেছিল টাইগাররা।

সেই ম্যাচের বছরখানেক পর আর মাত্র একটি ম্যাচ হয়েছে জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে সেই ম্যাচটি ড্র করে বাংলাদেশ। কাটার মাস্টার মুস্তাফিজের ৪ উইকেট এবং সেই জুবায়ের হোসেনের ৩ উইকেটে ভর করে প্রথম ইনিংসে প্রোটিয়ারা মাত্র ২৪৮ রানে অলাউট হয়ে যায়! জবাবে তামিম(৫৭), মাহমুদুল্লাহ(৬৭) এবং লিটন দাস(৫০) –এর ইনিংসের উপর ভর করে মাত্র ৭৮ রানের লিড নেয় বাংলাদেশ। শেষ পর্যন্ত ম্যাচটি ফলাফলহীনভাবেই শেষ হয়। তবে ওই ম্যাচের দুই দিনের বেশি বৃষ্টিতে ভেসে গিয়েছিল। দুই ইনিংসের সামান্য বেশি খেলা হয়েছিল।

সাগরিকায় অনুষ্ঠিত ১৪টি টেস্ট ম্যাচের শেষ দুটিতেই শুধু পরাজয়ের স্মৃতি নেই টাইগারদের। এটা অবশ্যই আগামীকালের জন্য একটি উৎসাহব্যাঞ্জক বিষয় হতে পারে। যদিও বাংলাদেশের টেস্ট বোলিংয়ের ভরসা সেই বিশ্বের অন্যতম সেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। দলে নেই ইনজুরিতে আক্রান্ত মি. কাটার মুস্তাফিজুর রহমান। বাংলাদেশ বলছে জয়ের কথা ভেবেই মাঠে নামবে। কিন্তু এতদিন পর টেস্টে নেমে আসলে তারা কি করে সেটাও দেখার।


মন্তব্য