kalerkantho

মঙ্গলবার । ৬ ডিসেম্বর ২০১৬। ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৫ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


পাকিস্তানের ম্যাচ ফিক্সিং নিয়ে বোমা ফাটালেন শোয়েব আখতার!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৮ অক্টোবর, ২০১৬ ১৩:০৫



পাকিস্তানের ম্যাচ ফিক্সিং নিয়ে বোমা ফাটালেন শোয়েব আখতার!

বোমা ফাটালেন পাকিস্তানের সাবেক স্পিডস্টার শোয়েব আখতার। বললেন, ১৯৯৬ সালে ম্যাচ ফিক্সিং তার সর্বোচ্চ শিখরে পৌঁছেছিল।

আর ওই সময়ে পাকিস্তান দলের ড্রেসিং রুমের অবস্থা ছিল ভয়াবহ।

"বিশ্বাস করুন, ওই সময়ে (১৯৯৬) ড্রেসিং রুমের পরিবেশ ছিল সম্ভাব্য সবচেয়ে বাজে। " পাকিস্তানের টেলিভিশন জিও নিউজকে শোয়েব বলেছেন, "ক্রিকেটের বাইরে তখন অনেক কিছু ঘটছিল। ড্রেসিং রুমে তখন ক্রিকেটে মন দেওয়াই ছিল কঠিন। খুব বাজে পরিবেশ ছিল। "

শোয়েব এই বোমাটা মারলেন সাবেক দুই অধিনায়ক জাভেদ মিয়াদাদ ও শহীদ আফ্রিদির ঝগড়াঝাটি মেটার দুই দিন পর। মিয়াদাদ আফ্রিদিকে 'ম্যাচ ফিক্সার' বলেছিলেন। আরো বলেছিলেন, আফ্রিদি দেশ বেচে দিয়েছেন। আফ্রিদি মিয়াদাদকে অর্থ পিশাচ বলেছিলেন। তৃতীয় পক্ষের মধ্যস্ততায় বিবাদ মিটিয়ে করাচিতে কোলাকুলি করেছেন ওই দুজন।

এই প্রসঙ্গে রাওয়ালপিন্ডি এক্সপ্রেস বলেছেন, "বিষয়টা আদালতে গেলে আরো নোংরা ব্যাপার ছড়াতো মানুষের মাঝে। আবার আরো অনেক নাম চলে আসতো সামনে। " পাকিস্তানের ক্রিকেটে ম্যাচ ফিক্সিংয়ের অপরাধে আজীবন নিষিদ্ধ হয়ে আছেন সাবেক ব্যাটসম্যান সেলিম মালিক। ২০০০ সালে ম্যাচ পাতানো কেলেঙ্কারি সামনে আসার পর নিষিদ্ধ হন তিনি। এর পর নানা সময় পাকিস্তানের ক্রিকেট ও ক্রিকেটারদের বিরুদ্ধে ম্যাচ ফিক্সিংয়ের অভিযোগ উঠেছে। কিন্তু কোনো প্রমাণ মেলেনি।


মন্তব্য