kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৮ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৭ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


ইংল্যান্ডের বিপক্ষে দিনটা বিসিবি একাদশেরই

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৬ অক্টোবর, ২০১৬ ১৭:৪২



ইংল্যান্ডের বিপক্ষে দিনটা বিসিবি একাদশেরই

দুই দিনের প্রস্তুতি ম্যাচ ইংল্যান্ডের বিপক্ষে। চট্টগ্রামে এর প্রথম দিনটা বিসিবি একাদশেরই।

এমএ আজিজ স্টেডিয়ামে ওপেনার আব্দুল মাজিদ দারুণ এক মারকুটে সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছেন। তরুণ নাজমুল হোসেন শান্ত ৭২ রানের চমৎকার ইনিংস খেললেন। তবে মাজিদই এই ম্যাচে ইংল্যান্ডকে চমকে দিয়েছেন। তার ৯৫ বলের ১০৬ রানের ইনিংসে ভর করে বিসিবি একাদশ প্রথম ইনিংসে ২৯৪ রানে অল আউট হয়। জবাবে, কোনো উইকেট না হারিয়ে ২ রানে দিন শেষ করেছে ইংলিশরা।

বিসিবি একাদশের এই ওপেনিং ব্যাটসম্যান মাজিদ লাঞ্চের আগেই সেঞ্চুরি করতে পারতেন। কিন্তু পেশিতে টান লাগায় তখন অবসরে গিয়েছিলেন। ৮৬ বলে ৯২ রান তখন তার। দলের ৬ উইকেট পড়ার পর আবার ব্যাটিংয়ে নামেন মাজিদ। ২৫ বছরের খেলোয়াড় ৯০ বলে সেঞ্চুরি করেন। তার ১০৬ রানের ইনিংসে ১৬টি চার ও ১টি ছক্কা। স্পিনার জাফর আনসারি ৪, গ্যারেথ ব্যাটি ২ উইকেট নিয়েছেন। পেসার স্টুয়ার্ট ব্রডের শিকার ২ উইকেট।

মাজিদ ঘরোয়া ক্রিকেটের তারকা পারফরমারদের একজন। কিন্তু খুব আলোচিত নন কখনো। ইংল্যান্ডের সামনে তাই চমক হয়েই আসেন তিনি। আউটফিল্ডের ধীরগতির কারণে প্রথম সেশনে সেঞ্চুরি করতে পারেননি। তার সাথে ওপেন করে অধিনায়ক সৌম্য সরকার ৪ রানে আউট হন। তরুণ নাজমুল হোসেন শান্তর সাথে ৭৯ রানের জুটি গড়েন মাজিদ। দারুণ সব শট খেলছিলেন মাজিদ। ১ উইকেটে ১২৭ রানে লাঞ্চে যান তারা। কিন্তু মাজিদ ফেরেন আরো পরে।

মাঝের সময়টাতে মুমিনুল হক ১ রানে আউট হয়েছেন। মোসাদ্দেক হোসেন ও নাজমুল ইংলিশ বোলারদের পরীক্ষা নিলেন। তারা ৭৭ রানের জুটি গড়েন। মোসাদ্দেক ৪৯ বলে ৩ ছক্কা ২ চারে ৪৭ রান করেন। আর নাজমুল ১৩০ বলে ৯ বাউন্ডারিতে ৭২ রানের ইনিংস খেলেন। ৩৯ রান করেন উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান নুরুল হাসান।

তবে এদিন নিঃসন্দেহে সবাইকে ছাপিয়ে আলোচনায় মাজিদ। ময়মনসিংহের ব্যাটসম্যান এই মৌসুমে ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে দুটি সেঞ্চুরি করেছেন। ৫টি ফিফটি ছিল। ময়মনসিহের খেলোয়াড় তৃতীয় সর্বোচ্চ রান স্কোরার হয়েছেন ভিক্টোরিয়ার হয়ে খেলে। গড় ছিল ৪৪.১২। শীর্ষ রান সংগ্রাহের সাথে ছিল মাত্র ১৩ রানের ব্যবধান।

সেই মাজিদ গত ৮ অক্টোবরই জাতীয় লিগে ঢাকা বিভাগের হয়ে খেলেছেন ৯৬ রানের ইনিংস। ৪২টি ফার্স্ট ক্লাস ম্যাচে ৪৯.০০ গড়ে ২৬২৭ রান তার। সেঞ্চুরি ৬টি। সর্বোচ্চ রানের ইনিংসটি হার না মানা ২৫৩। লিস্ট 'এ' ক্রিকেটে ৪৫ ম্যাচে তার সেঞ্চুরি ৪টি। ইংল্যান্ডের মতো দলের বিপক্ষে তার সেঞ্চুরি প্রমাণ করলো, তার ওপর ভবিষ্যতেও চোখ রাখতে হবে।


মন্তব্য