kalerkantho

রবিবার । ১১ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


দাউদ ইব্রাহিমের ভয়ে মিয়াদাদের সাথে আফ্রিদির শান্তিচুক্তি!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৬ অক্টোবর, ২০১৬ ১২:২৯



দাউদ ইব্রাহিমের ভয়ে মিয়াদাদের সাথে আফ্রিদির শান্তিচুক্তি!

অগ্রজ জাভেদ মিয়াদাদের সাথে সব ঝামেলা আনুষ্ঠানিক ভাবে মিটিয়ে ফেললেন শহীদ আফ্রিদি। এখন সোশাল মিডিয়ায় এই দুই সাবেক পাকিস্তানি অধিনায়কের ঘনিষ্ঠ হয়ে বসে থাকার ভিডিও দেখবেন।

দেখবেন একে অন্যকে 'সরি' বলছেন কি আন্তরিকতায়। তবে এই মধুর সমাপ্তির পেছনে মাফিয়া ডন দাউদ ইব্রাহিম আছেন বলেই সবার ধারণা।

মিয়াদাদ বলেছিলেন, আফ্রিদি দেশ বেচেছেন। ম্যাচ ফিক্সার তিনি। আর আফ্রিদি বললেন, মিয়াদাদ অর্থপিশাচ। লেগে গেল তাতে। আফ্রিদি লিগ্যাল নোটিশও পাঠালেন মিয়াদাদকে। এমন সময় মঞ্চের পেছনে আন্ডারওয়ার্ল্ডের বাদশাহ দাউদ ইব্রাহিমের উপস্থিতি টের পাওয়া গেল। মিয়াদাদের বেয়াই তিনি। মেয়ের বিয়ে দিয়েছেন বড়ে মিয়ার ছেলের সাথে। জানা গেল, দাউদ ইব্রাহিম ফোন করে আফ্রিদিকে এই ঝামেলা মিটিয়ে নিতে নির্দেশ দিয়েছেন। নইলে পরিণাম খারাপ হবে।

অতপর শনিবার করাচিতে আফ্রিদির এক আত্মীয়র বাড়িতে আসলেন মিয়াদাদ। দুজন গলাগলি করলেন। পাশাপাশি বসে তাদের ঝামেলা মেটানোর কথা জানালেন। সেটি ভিডিও করে আফ্রিদির ভাই ছাড়লেন সোশাল মিডিয়ায়।

মিয়াদাদ বললেন, "উত্তেজনার বশে অনেক কথা বলা হয়েছে। আমিও বাজে কথা বলেছি। ওই কথা ফিরিয়ে নিচ্ছি। " তিক্ততার অবসানের ভিডিওতে সাবেক কোচের কাছে 'সরি' বলে আফ্রিদি জানালেন, "জাভেদ ভাইয়ের কথায় আমি ও আমার পরিবার কষ্ট পেয়েছি। তবে বুঝি যে আমিও তাকে কষ্ট দিয়ে কথা বলেছি। আমি এর জন্য দুঃখিত। " এই শান্তিতে গ্রেট ওয়াসিম আকরামও খুশি, "আমাদের ক্রিকেটের ইমেজের ক্ষতি হচ্ছিল এই বিতর্কে। "


মন্তব্য