kalerkantho


টেস্ট সিরিজে ব্যাটিংয়ে বেশি জোর দিচ্ছেন হাথুরুসিংহে

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৫ অক্টোবর, ২০১৬ ১৯:৫১



টেস্ট সিরিজে ব্যাটিংয়ে বেশি জোর দিচ্ছেন হাথুরুসিংহে

গত বছর ৫টি টেস্ট ম্যাচ খেললেও দীর্ঘ প্রায় ১৫ মাস ক্রিকেটের দীর্ঘতম ভার্সনে খেলেনি বাংলাদেশ। বড়সড় একটি বিরতির পর টেস্টে ইংল্যান্ডের মত পরাশক্তির মুখোমুখি হতে যাচ্ছে টাইগাররা।

আগামী বৃহস্পতিবার চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে শুরু হবে দুই ম্যাচ সিরিজের প্রথম টেস্ট ম্যাচ। ওই ম্যাচে বোলিংয়ের চেয়ে ব্যাটিংয়ের প্রতি বেশী জোর দিতে চান স্বাগতিক দলের প্রধান কোচ চন্দ্রিকা হাথুরুসিংহে।

আজ চট্টগ্রামে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, "আমরা দীর্ঘ সময় ধরে (টেস্ট) খেলিনি, এমনকি অনেকদিন ধরে ঘরোয়া পর্যায়েও লংগার ভার্সনে না। মূল খেলোয়াড়রা এই মৌসুমে এনসিএল খেলারও সুযোগ পায়নি। তাই বোলারদের দীর্ঘ সময় একই লেন্থে বল ফেলার ধারাবাহিকতা রাখা চ্যালেঞ্জের। তবে একজন ব্যাটসম্যান হিসেবে আপনারা খেলাটার জন্য যদি প্রস্তুত থাকেন তাহলে মানিয়ে নেয়াটা দ্রুততর হবে। "

হাথুরুসিংহে বলেন, "আমরা ওয়ানডে ক্রিকেটে ভাল করছি কারণ আমরা সঠিক সমন্বয়ের খেলোয়াড় পেয়েছি। টেস্ট ক্রিকেটে সঠিক সমন্বয়টা আমরা পাইনি। টেস্টে ২০ উইকেট নিতে পারে এমন বোলার খুঁজে পেতে আমি অনেক লড়াই করছি।

আমরা একজন লেগস্পিনার খুঁজছিলাম যে কিনা উইকেটগুলো নিতে পারে, কিন্তু সে হারিয়ে গেছে। তবে আমাদের যে স্পিনাররা আছে তারা অনেক ভাল। কিন্তু আমাদের সেই সমন্বয় নেই যারা ২০ উইকেট নিতে পারে। আমাদের অনেকগুলো ইনজুরি সমস্যা আছে এবং খেলোয়াড়রা ফর্ম হারার কারণ দীর্ঘদিন আমরা খেলিনি। আমি জানিনা এখন ফাস্ট বোলাররা কোন পর্যায়ে আছে। যে কারণে খেলোয়াড়দের সামর্থ্যেও উপরই নির্ভর করতে হবে। এটা যেকোন কিছুর চেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ। "

টাইগার দলের প্রধান কোচ বলেন, "আমি এটাকে কোন অজুহাত হিসেবে ব্যবহার করতে চাইনা। এটা যতই বড় কিংবা ছোট হোক ব্যক্তি বিশেষে এবং মানসিকভাবে কতটা প্রস্তুত হবে সেটার ওপর তা নির্ভরশীল। ম্যাচের পরিস্থিতি অনুসারে এটাকে শারীরিকভাবে উপস্থাপন করতে হবে। ম্যাচের জন্য নিজের আসল খেলাটার প্রস্তুতি থাকতে হবে। টি২০ ক্রিকেটে যেভাবে শুরু করা হয় ওয়ানডে কিংবা টেস্টে সেটা ভিন্ন হয়। "

তিনি বলেন, "আপনার কাছে যদি রসদ না থাকে তাহলে আপনি পরিকল্পনা করতে পারবেন না। যা নেই সেটাকে নিয়ে পরিকল্পনা করা যায়না। তাই আমাদের কাছ থেকে সরাসরি বিস্ময়কর কিছু প্রত্যাশা করবেন না। আমরা জয় পেলে সেটা দারুন হবে। তবে আমরা সঠিক পথেই আছি। এটাই আমাদের পর্যাপ্ত আত্মবিশ্বাস জোগাবে। যেটা নেই সেটা নিয়ে আমি খুব বেশি দুঃশ্চিন্তা করছি না। আমি চেষ্টা করছি আমাদের যা আছে সেটাকে সঠিকভাবে কাজে লাগাতে। "

এমন পরিস্থিতিতে জয় পাওয়াটাকে বোনাস হিসেবে প্রাপ্তি ঘটবে বলে মন্তব্য করেন স্বাগতিক দলের কোচ।


মন্তব্য