kalerkantho


আজহার নতুন যুগের ব্যানারম্যান

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৪ অক্টোবর, ২০১৬ ১৭:৩৭



আজহার নতুন যুগের ব্যানারম্যান

গতরাতে ইতিহাসের দ্বিতীয় এবং এশিয়ার প্রথম দিবা-রাত্রির টেস্টে সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছেন পাকিস্তানের আজহার আলী। দুবাই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টেস্টের প্রথম দিনে ১৪৬ রানের দুর্দান্ত ইনিংস খেলে দিন শেষ করেন।

আর এই ইনিংসের সুবাদে তাকে বলা হচ্ছে নতুন যুগের ‘ব্যানারম্যান’।

১৮৭৭ সালের ১৫ মার্চ মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ডে ক্রিকেটে টেস্ট ফরম্যাটের প্রথম ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়। অস্ট্রেলিয়া ও ইংল্যান্ডের মধ্যে ওই টেস্টে সেঞ্চুরি করেছিলেন অসি ওপেনার চালর্স ব্যানারম্যান। তাই তিনিই টেস্টের প্রথম সেঞ্চুরিয়ান। আর গোলাপি বলের দিবা-রাত্রির টেস্টকে বলা হচ্ছে নতুন যুগের টেস্ট ম্যাচ। নতুন আঙ্গিকের এই টেস্টের প্রথম সেঞ্চুরিয়ান হলেন পাকিস্তানের আজহার আলী।

টেস্ট ফরম্যাটের প্রথম টেস্টে ১৬৫ রানের ইনিংস খেলেন ব্যানারম্যান। ওই সময় স্কোরাররা বলের হিসাব রাখেননি। তাই রেকর্ড বইয়ে তার বল খেলার হিসাব নেই।

তবে ২৫৮ মিনিটে ১৮টি বাউন্ডারিতে নিজের ইনিংসটি সাজান ব্যানারম্যান। আর তিনিই ছিলেন ইতিহাসের প্রথম টেস্ট সেঞ্চুরিয়ান।

তবে ১৩৯ বছরে টেস্টই শুধু না, ক্রিকেটের অনেক চিত্রই পাল্টে গেছে। টেস্ট ক্রিকেটের পর ওয়ানডে। ওয়ানডের পর টুয়েন্টি টুয়েন্টি। ওয়ানডে ও টি-২০ ক্রিকেটের ভিড়ে অনেকটাই আর্কষণ হারিয়েছে টেস্ট। তাই টেস্ট ক্রিকেটকে আকর্ষণীয় করতে নতুনত্ব এসেছে এই ফরম্যাটে।

এজন্য গোলাপি বলে দিবা-রাত্রির টেস্ট আয়োজন করা হয়। টেস্ট ইতিহাসের প্রথম দিবা-রাত্রির টেস্ট খেলে অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ড। এ্যাডিলেড ওভালে ২০১৫ সালের ২৭ নভেম্বর। ওই টেস্টটি তিনদিনেই ৩ উইকেটে জিতে নেয় অস্ট্রেলিয়া। ইতিহাসের প্রথম দিবা-রাত্রির ঐ টেস্টে কোন ব্যাটসম্যানই সেঞ্চুরি করতে পারেননি। সর্বোচ্চ ৬৬ রানের ইনিংস খেলেন অস্ট্রেলিয়ার উইকেটরক্ষক পিটার নেভিল।

তবে টেস্ট ইতিহাসে দিবা-রাত্রির ম্যাচের প্রথম সেঞ্চুরিয়ান হলেন আজহার। ফলে ব্যানারম্যানের মতই রেকর্ড বইয়ে এক্কেবারের মত নিজের নাম লিখিয়ে ফেললেন আজহার। তাই নতুন যুগের টেস্টের ব্যানারম্যান হয়ে গেলেন পাকিস্তানের ওয়ানডে অধিনায়ক আজহার।


মন্তব্য