kalerkantho

শুক্রবার । ২ ডিসেম্বর ২০১৬। ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ১ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


পুজো এলেই পাড়ার মণ্ডপে চেনা সৌরভ!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৪ অক্টোবর, ২০১৬ ১১:৪১



পুজো এলেই পাড়ার মণ্ডপে চেনা সৌরভ!

সৌরভ গাঙ্গুলীকে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় একেবারে অন্য ভূমিকায় দেখা গেল। বিসর্জনের জন্য পাড়ার ঠাকুর রওনা হওয়ার আগে মণ্ডপে গিয়ে প্রণাম সেরে নিলেন দাদা।

ঠাকুর প্রণামের জন্য উঠে পড়লেন ট্রাকে। তাঁর ইচ্ছায় বাজানো শুরু হল ঢাকও।

তাসার জোরাল আওয়াজ পছন্দ নয় সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের। তাঁর অনুরোধেই বদলে গেল বিসর্জনের সুর। তাসা বন্ধ হয়ে শুরু হয়ে গেল ঢাকের তালে 'ঠাকুর থাকবে কতক্ষণ, এবার যাবে বিসর্জন'।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৬.০৫। বড়িশা প্লেয়ার্স কর্নারের প্রতিমা ততক্ষণে ট্রাকে উঠে গিয়েছে। বাড়ির সামনে দেখা গেল সৌরভকে। বরাবরই পুজোর আবহ, প্যান্ডেল পছন্দ তাঁর। এখনও সেই মনোভাবে কোনও পরিবর্তন হয়নি যেন।

মণ্ডপে এসে ফোনে কিছুক্ষণ কথা বললেন। আড্ডা মারলেন পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে। মিনিট কুড়ি পরে বাড়ি থেকে বেরিয়ে সোজা উঠে গেলেন ট্রাকে। দুর্গাপ্রতিমার পায়ে হাত দিয়ে প্রণাম সারলেন। পাশের ট্রাকে উঠে কার্তিক-সরস্বতীকে প্রণাম করলেন। সেখান থেকে নেমে আবার পাশের ট্রাকে উঠে গণেশ মূর্তির পায়ে হাত দিয়ে প্রণাম সারলেন।

ততক্ষণে ঢাকিরা আসর জমাতে শুরু করেছেন। কিছুক্ষণ পর তাসা পার্টির প্রবেশ। কিন্তু সেটা মনে হয় পছন্দ হল না সৌরভের। তাঁর কথাতেই তাসা বন্ধ হয়ে ফের বাজতে শুরু করল ঢাক।

বড় রাস্তা পর্যন্ত শোভাযাত্রার সঙ্গেই গেলেন সৌরভ। ভক্তদের আবদারে প্রচুর সেলফি তুললেন। সকলকে বিজয়ার শুভেচ্ছা জানিয়ে ফিরলেন বাড়িতে।


মন্তব্য