kalerkantho


ড্রাগ টেস্ট নিয়ে বড্ড ঝামেলায় আন্দ্রে রাসেল

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৩ অক্টোবর, ২০১৬ ১৩:৩৯



ড্রাগ টেস্ট নিয়ে বড্ড ঝামেলায় আন্দ্রে রাসেল

তিনবার ড্রাগ টেস্ট দেননি। এই অপরাধে জ্যামাইকান অ্যান্টি-ডোপিং কমিশনের (জ্যাডকো) মুখোমুখি আন্দ্রে রাসেল।

বুধবার আবার শুনানিতে গেলেন। নানা প্রশ্নের মুখে পড়লেন। কিন্তু রাসেল দাবি করলেন, তার পক্ষ থেকে সব কিছুই করা হচ্ছে। অথচ কোনো এক ঝামেলায় জ্যাডকোর সাথে সমন্বয়টা হচ্ছে না।

ব্যাপারটা হলো তিনবার ড্রাগ টেস্ট এড়ালে একটি ড্রাগ টেস্টে পজিটিভ হওয়ার আইন। ১২ মাসের মধ্যে তিনবার ড্রাগ টেস্টে হাজির না হওয়ায়ই ক্যারিবিয়ান চ্যাম্পিয়ন অল-রাউন্ডার বিচারের মুখোমুখি। দোষী প্রমাণিত হলে সর্বোচ্চ দুই বছরের জন্য নিষিদ্ধ হওয়ার চোখ রাঙানি।

এই ঝামেলাটা হতাশায় ডুবিয়েছে ২৮ বছরের রাসেলকে। শুরু এই বছর বিশ্বকাপ টি-টোয়েন্টিতে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে চ্যাম্পিয়ন করানোর আগে। শিরোপা জেতার পর নানা তারিখ পড়ছে। জ্যাডকোর সামনে হাজির হচ্ছেন রাসেল। হয়ত এই চাপেই পাকিস্তানের বিপক্ষে সাম্প্রতিক ওয়ানডে সিরিজে ছুটি নিয়ে নিলেন।

এখন অভিযোগ, জ্যাডকোর ওয়েবসাইটে কেন নিজের সাম্প্রতিক অবস্থা আপডেট করেননি রাসেল। রাসেল বলছেন, তিনি করেছেন। কিন্তু কোনো এক ঝামেলায় তা আপডেট হয়নি। প্রমাণ হিসেবে সংশ্লিষ্টদের কাছ থেকে ইউজার নেম, পাসওয়ার্ড ও বিস্তারিত জানার উল্লেখও করেছেন। জ্যাডকোর আইনজীবীকে এও জানালেন যে সম্প্রতি এক অনুশীলনের সময় কানাকানি শুনলেন তার তথ্য আপডেট হয়নি। তিনি দ্রুত জ্যাডকোতে গেলেন। আপডেট করলেন আবার। কিন্তু বাড়ি ফিরে পেলেন জ্যাডকোর পাঠানো রাসেলের সময় মতো আপডেট করতে ব্যর্থতা জানান দেওয়া চিঠি। ১৭ নভেম্বর রাসেলের পরবর্তী শুনানি।


মন্তব্য