kalerkantho

শনিবার । ১০ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৯ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


সতীর্থের সাথে এমন আচরণে চুপ থাকব না : স্টোকস

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১০ অক্টোবর, ২০১৬ ২০:১৪



সতীর্থের সাথে এমন আচরণে চুপ থাকব না : স্টোকস

বাংলাদেশ-ইংল্যান্ড সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে বাংলাদেশের দারুণ কামব্যাক ছাপিয়ে দুই দলের ‘ঝগড়া’ এখন আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমের শিরোনাম। এ নিয়ে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা গেছে বাংলাদেশী ক্রিকেটপ্রেমীদের মধ্যে।

ইংলিশ মিডিয়াও বিষয়টি নিয়ে বেশ ‘গবেষণা’ করেছে। এরই মধ্যে আলোচনায় প্রথম ম্যাচের সেঞ্চুরিয়ান বেন স্টোকসের একটি টুইট।

জস বাটলারের সেই আউট দিয়ে শুরু হওয়া ঘটনার রেশ থেকে গিয়েছিল ম্যাচের শেষ পর্যন্ত। তাই ম্যাচ জয়ের পর যখন বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা ইংলিশদের সঙ্গে হাত মেলাতে গেলেন তখন আবারও দুই দলের ক্রিকেটারদের মধ্যে উত্তপ্ত বাক্য বিনিময় হয়। এবারের চরিত্র বাটলার নয়; বেন স্টোক বনাম তামিম ইকবাল।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যমগুলো দাবি করছে, করমর্দনের সময় বেয়ারস্টোকে কিছু একটা বলে বসেন তামিম। তবে তার আগে তামিমের করমর্দনের প্রস্তাবে বেয়ারস্টোক হাত বাড়াননি বলেও দাবি করে কিছু আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম। যাই হোক, এরপর হঠাৎ বেয়ারস্টোকের পেছনে থাকা বেন স্টোকস তেড়ে আসেন তামিমের দিকে। আঙ্গুল উঁচিয়ে কিছু একটা বলতে দেখা যায় তাকে। তামিমও ছাড়ার পাত্র নন। শেষ পর্যন্ত সাকিব আল হাসানের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি শান্ত হয়।

পুরস্কার বিতরণী শেষে হোটেলে গিয়েও এই ঘটনা ভুলতে পারেননি বেন স্টোকস। তাই রাত বারোটার দিকে তিনি পরপর দুটি টুইট করেন। প্রথমটিতে তিনি লিখেন, “আজ রাতের জয়ের জন্য বাংলাদেশ দলকে অভিনন্দন। আমাদের চেয়ে ভালো খেলেছে ওরা। তবে কেউ আমার সতীর্থের সাথে বাজে আচরণ করলে আমি চুপ করে থাকব না। ”

তার পরের টুটটেই তিনি লিখেছেন, “আশা করি আগামী ম্যাচ জিতে সিরিজ নিশ্চিত করব এবং টেস্ট সিরিজের জন্য প্রেরণা গ্রহণ করব। ”

এই বিবাদের ঘটনায় ইতোমধ্যে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা এবং ব্যাটসম্যান সাব্বির আহমেদকে ম্যাচ ফি’র ২০ শতাংশ জরিমানা করেছে আইসিসি। অন্যদিকে ‘অশালীন ভাষা এবং শারীরিক অভিব্যক্তির দরুণ’ ইংল্যান্ড দলের অধিনায়ক জস বাটলারকে তিরস্কার করা হয়েছে।


মন্তব্য