kalerkantho

রবিবার । ১১ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


দিবারাত্রির টেস্টে পাকিস্তান দলে বাবর আজম

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৯ অক্টোবর, ২০১৬ ১২:১৬



দিবারাত্রির টেস্টে পাকিস্তান দলে বাবর আজম

পাকিস্তান টেস্ট দলে ডাক পেলেন ফর্মের তুঙ্গে থাকা ব্যাটসম্যান বাবর আজম। এশিয়ার মাটিতে অনুষ্ঠিতব্য প্রথম দিবারাত্রির টেস্টে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে আসন্ন প্রথম ম্যাচের জন্য গতকাল ঘোষিত পাকিস্তান দলে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে আজমকে।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে গত বুধবার শেষ হওয়া তিন ম্যাচের ওয়ানডে তিন সেঞ্চুরিসহ মোট ৩৬০ রান করেন ২১ বছর বয়সী এ ব্যাটসম্যান।

পাকিস্তানের হয়ে ১৮ ওয়ানডে ও চারটি টি-টোয়েন্টি খেললেও এখন পর্যন্ত কোনো টেস্ট খেলেননি আজম।

ডেঙ্গু জ্বর থেকে সেরে উঠলেও এখন পর্যন্ত পুরোপুরি ফিট না হওয়ায় প্রথম টেস্ট মিস করছেন সিনিয়র ব্যাটসম্যান ইউনিস খান। তিন ম্যাচ সিরিজের বাকি দুই টেস্টের দল পরবর্তীতে ঘোষণা করা হবে।

প্রধান নির্বাচক ইনজামাম-উল হক জানান, আজমকে তার অসাধারণ পারফরমেন্সের পুরস্কার দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া দলে সুযোগ পেয়েছেন নতুন মুখ মোহাম্মদ নওয়াজ। ইনজামাম বলেন, "বড় পর্যায়ে আজম খুবই ভালো করেছে বলে আমরা মনে করেছি এবং দারুণ ফর্মে আছে। যে কারণে আমরা তাকে দলভুক্ত করেছি, যাতে করে সে আরো প্রস্ফুটিত হতে পারে। "

ইংল্যান্ড সফরে ২-২ ব্যবধানে সমতা আনা সিরিজের ১৫ সদস্যের দল থেকে বাদ পড়েছেন দুই ওপেনার মোহাম্মদ হাফিজ ও শান মাসুদ।

দল থেকে দুই নিয়মিত ওপেনারের বাদ পড়ার কারণ ব্যাখ্যা করেন ইনজামাম। গত আগস্টে পাকিস্তানের শেষ টেস্ট সম্পর্কে ইনজামাম বলেন, "আমরা অধিনায়ক মিসবাহ-উল হক ও প্রধান কোচ মিকি আর্থারের সঙ্গে আলোচনা করেছি এবং তারা ওভাল টেস্টের কম্বিনেশন চেয়েছে, যে ম্যাচে ওপেনার হিসেবে আজহার আলী ও সামি আসলাম খেলেছে। "

দুবাইতে ১৩ অক্টোবর শুরু হওয়া প্রথম ম্যাচটি হবে ফ্লাড লাইটে ইতিহাসের দ্বিতীয় টেস্ট। দ্বিতীয় টেস্টের আগেই ইউনিস পুরোপুরি ফিট হয়ে উঠবেন বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি।

আবুধাবিতে ২১ অক্টোবর প্রথম এবং শারজাহতে ৩০ অক্টোবর দ্বিতীয় টেস্ট শুরু হবে। পাঁচ দিনের ম্যাচে মাঠে বেশিসংখ্যক দর্শক টানার লক্ষ্যে গত বছর নভেম্বরে এডিলেডে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম দিবারাত্রির টেস্ট খেলে অস্ট্রেলিয়া।

পাকিস্তান দল : মিসবাহ-উল হক (অধিনায়ক), আজহার আলী, আসাদ শফিক, বাবর আজম, মোহাম্মদ নওয়াজ, সরফরাজ আহমেদ, ইয়াসির শাহ, মোহাম্মদ আমির, ইমরান খান, ওয়াহাব রিয়াজ, সোহেল খান, জুলফিকার বাবর ও রাহাত আলী।


মন্তব্য