kalerkantho

রবিবার । ১১ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


বাংলাদেশে দিনে ৬,০০০ ক্যালরি পুড়ছে বেয়ারস্টোর!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৬ অক্টোবর, ২০১৬ ১৪:২৪



বাংলাদেশে দিনে ৬,০০০ ক্যালরি পুড়ছে বেয়ারস্টোর!

দিনে ৬,০০০ ক্যালরি খরচ! জনি বেয়ারস্টো নিজেই অবাক! বাংলাদেশের আবহাওয়ার গরম ও আর্দ্রতায় ইংল্যান্ডের ক্রিকেটারদের জেরবার অবস্থা। শুক্রবার মিরপুরে সিরিজের প্রথম ওয়ানডে ম্যাচ।

দুপর আড়াইটায় শুরু ম্যাচে দারুণ রোদে আগে ফিল্ডিং করত হলেই সর্বনাশ! ৫০ ওভারের ম্যাচেই এই অবস্থা। তাহলে টেস্টের দিনে ৯০ ওভারের খেলায় কি অবস্থা হতে পারে ভেবে প্রার্থণায় মগ্ন হতে হচ্ছে ইংল্যান্ডের উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যানকে!

মঙ্গলবার ফতুল্লায় ছিল ইংল্যান্ডের একমাত্র ওয়ানডে প্রস্তুতি ম্যাচ। ওই ম্যাচে ফিল্ডিংয়ের সময় ৬.৪ মাইল ছুটতে হয়েছে বেয়ারস্টোকে। তাতে পুড়েছে ২,৫৬০ ক্যালরি। একজন ফুটবলারের ৯০ মিনিটের ম্যাচে গড়ে ৬.৮ মাইল ছুটতে হয়। তাতে ১,৩০০ ক্যালরি খরচ হয়। বেয়ারস্টোর তো শুধু ফিল্ডিংয়েই এর প্রায় দ্বিগুণ খরচ হয়েছে! একজন টেনিস খেলোয়াড়ের ৫ সেটের ম্যাচে ৩ মাইল ছুটে গড়ে ৩,২০০ ক্যালরি খরচ হতে পারে। কিন্তু সব মিলিয়ে বেয়ারস্টোর খরচ যে ৬,০০০ ক্যালরি!

ইংলিশ ট্যাবলয়েড ডেইলি মেইলে কলাম লিখছেন বেয়ারস্টো। সেখানে লিখেছেন, "প্রথম ম্যাচে আগে আমাদের কেবল দিনে একটি প্র্যাকটিস সেশন ও রাতে একটি। ওয়ানডে সিরিজে কন্ডিশনটা আমাদের জন্য দারুণ কঠিন হতে পারে। ওয়ার্ম আপ ম্যাচে বিসিবি একাদশের বিপক্ষে তা বুঝেছি। এখন দুপুর আড়াইটায় শুরু ম্যাচে আগে ফিল্ডিং করতে হলে আরো কঠিন হবে। "

কন্ডিশনটা 'নিষ্ঠুর' বেয়ারস্টোর চোখে। "আমি একটা ফিটবিট পরছি ম্যাচের সময়। এই প্রথম। এতে আমার কতো ক্যালরি খরচ হচ্ছে, হার্টবিট কতো থাকছে তা বোঝা যাচ্ছে। জিপিএস দিয়ে বুঝছি মাঠে কতোটা ছুটলাম। ফতুল্লার ম্যাচে পাওয়া তথ্যগুলো চমকানোর মতো। " কি সেই তথ্য? বেয়ারস্টো লিখেছেন, "সেদিন মাঠে ৬.৪ মাইল ছুটেছি। মিনিটে ১১৯ ছিল হার্ট-রেট। খরচ করেছি ২,৫৬০ ক্যালরি। এ যেন ৩ ঘণ্টা ৫৪ মিনিটের ফ্যাট ঝরানো সেশন! গোটা দিনে (ব্যাটিংসহ) ৬,১০০ ক্যালরি পুড়িয়েছি। তাতে স্পষ্ট গরম আর আর্দ্রতা আপনাকে কতোটা নিংড়ে নিচ্ছে এবং কতোটা খেতে ও পান করতে হবে আপনাকে। আর এটা তো কেবল ৫০ ওভারের ম্যাচ। "

টেস্ট নিয়ে তাই আগে ভাগে কিছুটা উদ্বিগ্ন বেয়ারস্টো, "আমি এই ফিটবিট ৯০ ওভারের ম্যাচেও (টেস্ট) কিপিং ও ব্যাটিংয়ের সময় পরব। প্রার্থনা করতে হবে। দেখা যাক তখন কি ঘটে। " বাংলাদেশের সাথে ইংল্যান্ডের লড়াই এই আবহাওয়ার বিরুদ্ধেও।  


মন্তব্য