kalerkantho

রবিবার । ১১ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


ধোনির বিখ্যাত 'হেলিকপ্টার শট' এর জন্মদাতা সন্তোষ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৩ অক্টোবর, ২০১৬ ১৫:৩১



ধোনির বিখ্যাত 'হেলিকপ্টার শট' এর জন্মদাতা সন্তোষ

ক্রিকেটে এক আজব সংযোজন হলো হেলিকপ্টার শট। অনেক চেষ্টা করেও মহেন্দ্র সিং ধোনির মতো নিখুঁতভাবে এই শট কেউ খেলতে পারেন না।

কিন্তু এই শটের জনক ধোনি নন। অন্য একজন; যিনি এতদিন ছিলেন পর্দার আড়ালে।

সদ্য মুক্তি পেয়েছে ধোনির বায়োপিক 'এম এস ধোনি, দ্য আনটোল্ড স্টোরি'। ছবিটিতে দেখানো হয়েছে ধোনির বিখ্যাত 'হেলিকপ্টার' শট। সিনেমাতেই দেখানো হয়েছে, ধোনি তার বন্ধু সন্তোষকে প্রথম এই শট মারতে দেখেছিলেন এবং পরে তার কাছে এই শট মারাটা অভ্যাস করেছিলেন।

ধোনি নিজেও রিয়েল লাইফে বহুবার জানিয়েছেন, 'হেলিকপ্টার' শটের জন্মদাতা তিনি নন। তার এক বন্ধুকে প্রথম এই শটটি মারতে দেখে তা অভ্যাস করেছিলেন। সন্তোষ নামে এই ক্রিকেটার বন্ধুর সঙ্গে ছোট থেকে বড় হয়েছিলেন ধোনি। দুজনই ঘনিষ্ঠ বন্ধু ছিলেন। কিন্তু, ক্রিকেট প্রতিভায় ধোনি অনেক এগিয়ে ছিলেন সন্তোষের থেকে। যদিও, রাঁচির বন্ধুদের কোনোদিনই ভুলে যাননি ধোনি। বন্ধুরা পাশে ছিলেন বলেই আজ বিশ্ব ক্রিকেটের অন্যতম চরিত্র হয়ে উঠেছেন বলেই ধোনি বিশ্বাস করেন।

সেই কারণে বন্ধুদের কাছে ধোনি একদম পাশের বাড়ির ছেলে। রাঁচিতে যখনই যান, বন্ধুদের সঙ্গে আড্ডা মারেন। নিশান্ত দয়াল নামে ধোনির এক বন্ধু জানিয়েছেন, সন্তোষও এইসব আড্ডায় থাকতেন। সন্তোষ এত দুর্ধর্ষ ব্যাটসম্যান ছিলেন যে ধোনিও তার ভক্ত ছিলেন।

কিন্তু সেই সন্তোষ লাল এখন আর বেঁচে নেই। ক্রিকেটার হিসাবে সন্তোষ রঞ্জি ট্রফি খেলেছিলেন, কিন্তু, ৩২ বছর বয়সে প্যানক্রিয়াটাইটিসে আক্রান্ত হয়ে গুরুতর অসুস্থ হন সন্তোষ। ধোনি সেই সময়ে জাতীয় দলের হয়ে খেলতে ব্যস্ত ছিলেন। সন্তোষের অসুস্থতার খবর পেয়ে রাঁচিতে এয়ার অ্যাম্বুল্যান্স পাঠান ধোনি। কিন্তু, দিল্লিতে আনার পথেই মৃত্যু হয় সন্তোষের। আর এই মৃত্যুর সঙ্গে সঙ্গে আড়ালে চলে যান 'হেলিকপ্টার' শটের জন্মদাতা।


মন্তব্য