kalerkantho

শুক্রবার । ৯ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


বরুসিয়া মনচেনগ্লাডবাচকে ২-১ গোলে হারাল বার্সেলোনা

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ২১:২৫



বরুসিয়া মনচেনগ্লাডবাচকে ২-১ গোলে হারাল বার্সেলোনা

দ্বিতীয়ার্ধে গেরার্ড পিকের গোলে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ফুটবলে বরুসিয়া মনচেনগ্লাডবাচকে বুধবার ২-১ গোলে হারিয়েছে বার্সেলোনা। ম্যাচের শুরুতে অবশ্য থর্গান হেজার্ডের গোলে এগিয়ে গিয়েছিল স্বাগতিক বরুশিয়া।

এর আগে আর্ডা তুরানের গোলে সমতায় ফিরে বার্সেলোনা।
এর আগে সি গ্রুপে চলতি মাসের শুরুতে নিজেদের প্রথম ম্যাচে ম্যানচেস্টার সিটি ৪-০ গোলে গ্লাবডবাচকে এবং বার্সেলোনা ৭-০ গোলে সেল্টিককে পরাজিত করেছিল। তবে বরুশিয়া পার্কে অনুষ্ঠিত এ ম্যাচে প্রথমার্ধে গোল করে এবং ওই অর্ধের বিরতিতে যাওয়া পর্যন্ত লিড ধরে রেখে বেশ খোশ মেজাজেই ছিল স্বাগতিক দল।
তবে শেষ পর্যন্ত সেটি ধরে রাখতে পারেনি জার্মানরা ক্লাবটি। দ্বিতীয়ার্ধে এসে আর্ডা জোড়ালো শটে গোল করে প্রথমে সমতায় ফেরান কাতালানদের। এরপর প্রতিপক্ষের গোলরক্ষকের দুর্বলতার সুযোগ নিয়ে জয়সুচক গোল আদায় করেন পিকে। এ ফলাফলে টানা তিন ম্যাচে জয়হীনই থেকে গেল জার্মানির লীগা চ্যাম্পিয়নরা। অপরদিকে ইনজুরি পড়া তারকা ফুটবলার মেসিকে ছাড়াই দুই ম্যাচের দুটিতেই জয় নিশ্চিত করল বার্সেলোনা। আর্জেন্টিনার এই সুপার স্টার সর্বশেষ স্পোর্টিং গিজেনের বিপক্ষে ম্যাচে অংশ নিয়েছিল। যেখানে ৫-০ গোলে জয়লাভ করে বার্সেলোনা।
নেইমার ও লুইস সুয়ারেজ সহজ সুযোগ নষ্ট না করলে সহজ জয় নিয়েই মাঠ ছাড়তে পারতো লুইস এনরিকের দল। সপ্তম মিনিটে ম্যাচের প্রথম সুযোগটি নষ্ট করেন নেইমার। ডি-বক্সের মাঝ থেকে তার নেয়া শর্টটি ছিল সরাসরি গোলরক্ষক বরাবর। চার মিনিট পর সুয়ারেজের ভলি বাঁক খেয়ে গোল পোস্ট এড়িয়ে যায়। ২১তম মিনিটে আরেকটি সুযোগ নস্ট করেন উরুগুইয়ান তারকা। আর এসব ভুলের খেসারত হিসেবে পিছিয়ে পড়তে হয় বার্সেলোনাকে।
৩৪তম মিনিটে মাঝমাঠে সার্জিও বাসকুইটস বলের নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেললে প্রতি আক্রমণ থেকে গোল করে এগিয়ে যায় মনচেনগ্লাডবাচ।
এসময় মিডফিল্ডার বল পেয়ে যান রাফায়েল। তার ক্রস থেকে বল পেয়ে বার্সার জালে জড়িয়ে দেন হাজার্ড। এরপর গোল পরিশোধের আরো কয়েকটি সুযোগ নষ্ট করে বার্সার খেলোয়াড়রা। শেষ পর্যন্ত দলকে সমতা ফিরিয়ে দেন ইভান রিকটিচের পরিবর্তিত হিসেবে মাঠে আসা তুরান। ৬৫তম মিনিটে নেইমারের বাড়ানো বলে কাছ থেকে জোরালো শট নিলে সেটি আশ্রয় নেয় স্বাগতিক জালে।
৭৪তম মিনিটে বার্সেলোনাকে এগিয়ে নেন সুযোগসন্ধানী পিকে। নেইমারের কর্নার থেকে সুয়ারেজের জোরালো শট গোলরক্ষক ফেরালেও বিপদমুক্ত করতে পারেননি। ফিরতি বল জালে পাঠিয়ে দেন স্প্যানিশ এই ডিফেন্ডার। এর ফলে পুর্ন তিন পয়েন্ট জমা হয় বার্সার সংগ্রহশালায়।


মন্তব্য