kalerkantho

বুধবার । ৭ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৬ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


সত্যি '৪৫ বছরের মাথা' মোসাদ্দেকের!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৯:২০



সত্যি '৪৫ বছরের মাথা' মোসাদ্দেকের!

বাংলাদেশ-আফগানিস্তান দ্বিতীয় ওয়ানডেতে স্বাগতিকদের ইনিংস দেখেছেন? দেখে থাকলে আপনাকে তামিম ইকবালের সাথে একমত হতেই হবে। তামিম কদিন আগেই বলেছিলেন, ২০ বছরের মোসাদ্দেক হোসেনের মাথাটা ৪৫ বছরের মানুষের! মিরপুরে অভিষেক ওয়ানডেতেই তো সেই কথাটা প্রমাণ কর দিলেন মোসাদ্দেক।

৪৫ বলে ৪৫ রানে অপরাজিত। ৪ বাউন্ডারি। ২ ছক্কা। শুনলে মনে হয় এ আর তেমন বড় কি! কিন্তু যখন জানবেন ১৪১ রানে টাইগাররা ৭ উইকেট হারানোর পর এই ইনিংস খেলেছেন মোসাদ্দেক, তখন? তখন আর এই ইনিংস আর সাধারণ কিছু থাকে না। এটাকে তখন বলতে হয় মাত্রই টিনএজ পার হওয়া ব্যাটসম্যানের পরিণত মস্তিস্কের পারফরম্যান্স। স্বাগতিকদের ইনিংসের সর্বোচ্চ রানটিও মোসাদ্দেকের। তার এই ইনিংসের ওপর ভর করেই তো শেষ পর্যন্ত ২০৮ রান করতে পেরেছে বাংলাদেশ। ৪৯.২ ওভারে অল আউট হয়েছে।

তা ওভারের প্রসঙ্গটা যখন আসলো তখন আরো জেনে নিন ৩৪ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়েছিল বাংলাদেশ। তখনো ১৬ ওভার বাকি। আর তিন বোলারকে নিয়েই ১৫.২ ওভার খেলে দিয়েছেন মোসাদ্দেক। শেষের দিকে এসে দ্রুত রান তোলার চেষ্টা করেছেন। ৪৮তম ওভারে ১১ ও ৪৯তম ওভারে ১৫ রান তুলেছেন। দুই ওভারেই দুটি ছক্কা মেরেছেন। বাংলাদেশের ইনিংসে ছক্কা এই দুটি মাত্র। শেষ ছক্কার ওভারে দুটি বাউন্ডারিও মেরেছেন।

৩৪তম ওভারের শেষ বলে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা আউট। আর কিভাবে জুটি হবে? তাইজুল ইসলামকে সাথী করে লড়ে গেলেন মোসাদ্দেক। তাইজুলও ভালো সঙ্গ দিয়েছেন। ১০ রান করেছেন ৩১ বল খেলে। অষ্টম উইকেটে ২৪ রানের জুটি। ৮.৩ ওভার খেলে। তাইজুলের পরের বলে তাসকিনও আউট। অভিষেকের চাপ। ধ্বংসস্তুপে দাঁড়িয়ে ব্যাট করার চাপ। তার সাথে এবার শেষ উইকেট জুটির চাপ। সেই চাপ জয় করে মোসাদ্দেক ৬.৪ ওভার খেললেন রুবেল হোসেনকে (১৬ বলে ১০ রান)। ইনিংসের তৃতীয় সর্বোচ্চ ৪৩ রানের জুটি শেষ উইকেটে। আবার এটাই দ্রুততম রান তোলা জুটি। শেষের ব্যাটসম্যানদের গাইড করে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে একেবারে নতুন মোসাদ্দেকের এনে দেওয়া ৬৭ রানই তো লড়াইয়ের সুযোগ রেখেছে বোলারদের জন্য!

মোসাদ্দেক এখন উঠতি ক্রিকেটারদের মধ্যে সবচেয়ে প্রতিশ্রুতিশীল একজন। গত বছরের নভেম্বরে টি-টোয়েন্টি অভিষেক। মন রাখার মতো ছিল না। কিন্তু ঘরোয়া ক্রিকেটে ধারাবাহিক পারফরম্যান্স তাকে সুযোগ করে দিয়েছে ইমরুল কায়েসের জায়গায় খেলে অভিষেকের। প্রথম দুই ওয়ানডের দলে রাখা হয়েছিল তাকে। এখন টিম ম্যানেজমেন্টের সামনে তৃতীয় ওয়ানডেতে তাকে না রাখার কোনো উপায় রাখেননি মোসাদ্দেক।

মোসাদ্দেক সম্পর্কে আরো পড়তে ও জানতে ক্লিক করুন : '৪৫ বছরের মাথার' মোসাদ্দেকের অভিষেক


মন্তব্য