kalerkantho

শুক্রবার । ৯ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


মুশফিককে বিপদে ফেলতে আফগানদের ‘অস্ত্র’

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১১:৪৮



মুশফিককে বিপদে ফেলতে আফগানদের ‘অস্ত্র’

মুশফিকুর রহিমকে বলা হয় ‘মি. ডিপেন্ডেবল’। আর সেজন্যই তাকে আউট করার জন্য মরিয়া হয়ে উঠে সব বোলার।

চলতি আফগানিস্তানের বিপক্ষে সিরিজে আফগান বোলার রশিদ খানও সেটাই করছেন। এই ডান হাতি লেগ স্পিনার তার সেরা অস্ত্র গুগলি দিয়ে বিপদে ফেলতে চান মুশিকে।

আজ বুধবার সিরিজের দ্বিতীয় ওয়ানডেতে মুখোমুখি দুই দল। আজকের ম্যাচ জিতলে বাংলাদেশ সিরিজ জিতে নেবে। সেই সঙ্গে শততম ওয়ানডে জয়ের দারুণ এক মাইলফলক স্পর্শ করবে টিম টাইগার্স। সিরিজের প্রথম ম্যাচে ১০ ওভারে ৩৭ রান দিয়ে বাংলাদেশের দুটি মূল্যবান উইকেট শিকার করেন রশিদ। মুশফিকুর ও সাব্বির রহমানের উইকেট শিকার করেন তিনি। গুগলি দিয়েই তাদের বধ করেন রশিদ। তাই এই গুগলিই নিজের বোলিং-এর সেরা অস্ত্র বলেও জানান রশিদ, ‘গুগলি আমার প্রধান অস্ত্র। এই গুগলি আমাকে কেউ শেখায়নি। সহজাতভাবেই আমি এটা শিখেছি। ’

চলতি বছরের শুরুতে বাংলাদেশে অনুষ্ঠিত অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে আফগানিস্তানের হয়ে খেলেছিলেন রশিদ। তাই এখানকার কন্ডিশন সর্ম্পকে ভালো ধারণা আছে তার। এমন অভিজ্ঞতার কারণেই আফগানদের হয়ে এবারের বাংলাদেশ সফরে আসেন রশিদ। তাই এখানকার উইকেট সর্ম্পকে ইতিবাচক কথা বলেন রশিদ, ‘অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে আফগানিস্তানের হয়ে এখানে খেলতে এসেছিলাম। এখানে বোলিংটা বেশ উপভোগ করেছি। স্পিনারদের জন্য খুব ভালো উইকেট এটি। আসলে এশিয়ার সবগুলো উইকেটই বোলারদের জন্য ভালো। ’

নিজের সেরা অস্ত্র দিয়ে বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের বধ করতে চান রশিদ। যেমনটা প্রথম ওয়ানডেতে করেছিলেন তিনি। বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের বিপক্ষে পরিকল্পনার ছক কষেই ম্যাচ খেলতে নামেন রশিদ। এ ব্যাপারে রশিদ বলেন, ‘আমরা ম্যাচের আগে টিম মিটিং করেছিলাম এবং বাংলাদেশ দলের প্রত্যেক ব্যাটসম্যানদের নিয়ে আমাদের পরিকল্পনা ছিল। প্রত্যক ব্যাটসম্যানকে নিয়ে কাজ করেছি। ব্যাটসম্যানদের দুর্বল জায়গা খুঁজে বের করেছি। মুশফিকুর রহিম স্লগ সুইপ ভালো খেলেন। তাই আসগর আমাকে বলেছিলেন- তুমি গুগলি করলে অনেক টার্ন করবে এবং কিছুটা সমস্যায় পড়বে তারা। আর তাই আমি সেটাই করেছিলাম। ’


মন্তব্য