kalerkantho

রবিবার। ৪ ডিসেম্বর ২০১৬। ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৩ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


কোহলির নেতৃত্বে ৫০০তম টেস্ট খেলতে মাঠে নামছে ভারত

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ২০:২২



কোহলির নেতৃত্বে ৫০০তম টেস্ট খেলতে মাঠে নামছে ভারত

টেস্ট র‌্যাংকিংয়ের শীর্ষে ফেরার লক্ষ্য নিয়ে আগামীকাল বিপজ্জনক নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে মাঠে নামবে স্বাগতিক ভারত। কেবলমাত্র জয় নয়; কানপুরের এ ম্যাচটি হবে ভারতের ৫০০তম টেস্ট।

তাই এ উপলক্ষে স্বাগতিক দলের সাবেক অধিনায়কদেরও আমন্ত্রণ জানিয়েছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই)। ম্যাচটি দেখার জন্য শচিন টেন্ডুলকার এবং কপিল দেবসহ অনেক আইকন ক্রিকেটারই উপস্থিত থাকবেন।

ব্ল্যাক ক্যাপসদের বিরুদ্ধে তিন টেস্টের প্রথম ম্যাচ ছাড়াও এ ম্যাচ দিয়ে ভারতীয় দল চলতি মৌসুমে আন্তর্জাতিক সূচি শুরু করায় সবদিক দিয়েই এটি স্বাগতিকদের কাছে অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ। কেননা, এ মাঠেই বছরের শেষ দিকে ইংল্যান্ড, বাংলাদেশ ও অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষেও ম্যাচ খেলবে ভারত।

কয়েক মাস আগে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে চার ম্যাচের সিরিজে ২-০ ব্যবধানে জয়ী হওয়া সিরিজে এন্টিগা টেস্টে অধিনায়ক বিরাট কোহলির প্রথম ডাবল সেঞ্চুরির পর নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে স্পষ্টতই ফেবারিট হিসেবে মাঠে নামবে স্বাগতিক ভারত।

সে সফরে সিরিজ জয়ের ফলে অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়ে র‌্যাংকিংয়ের শীর্ষস্থান দখল করলেও তা স্থায়ী করতে পারেনি ভারত। বৃষ্টির কারণে ক্যারিবিয়দের হোয়াইট ওয়াশ করার স্বপ্ন পূরণ না হওয়ায় চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী পাকিস্তান র‌্যাংকিংয়ের শীর্ষস্থান কেড়ে নেয়।

পাকিস্তানের চেয়ে মাত্র এক পয়েন্ট পিছিয়ে থেকে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজ শুরু করছে ভারত এবং আগামী অক্টোবর-নভেম্বরে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে পাকিস্তান তিন টেস্টের সিরিজ শুরু করার আগেই আবারো র‌্যাংকিংয়ের শীর্ষে ফেরার আশা করছে বিরাট কোহলির দল।

কোহলির অনুপ্রেরণায় বেশকিছু দিন যাবতই ভারতের টপ অর্ডার ব্যাটসম্যানরা দুর্দান্ত ফর্মে রয়েছে। শেষ আট টেস্টে তিনটি সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছেন নতুন মুখ লোকেশ রাহুল।

কিন্তু গত মার্চে নিজ মাঠে অনুষ্ঠিত টি-২০ বিশ্বকাপে নিউজিল্যান্ডের কাছে পরাজিত হওয়ায় কোন প্রকারেই আত্মতুষ্টিতে ভুগতে পারবে না স্বাগতিকরা।

দুই দলের মধ্যে সর্বশেষ ২০১৪ সালে এ্যাওয়ে সিরিজে তৎকালীন অধিনায়ক ব্রেন্ডন ম্যাককালামের ট্রিপল সেঞ্চুরির সুবাদে নিউজিল্যান্ডের কাছে ১-০ ব্যবধানে হেরেছিল ভারত।

তবে ম্যাককালাম অবসর নিলেও তার স্থলাভিষিক্ত হওয়া কেন উইলিয়ামসন এখন বিশ্বের সেরা ব্যাটসম্যান হিসেবে প্রতিষ্ঠিত এবং চলতি সফরেই গত সপ্তাহের অনুশীলন ম্যাচে হাফ সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে ইতোমধ্যেই নিজের ফর্মের পরিচয় দিয়েছেন।

কানপুরের গ্রীন পার্কে বিসিসিআই আয়োজিত উৎসবে সুনিল গাভাস্কার এবং মোহাম্মদ আজহার উদ্দিনের মতো সাবেক অধিনায়করাও যোগ দেবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

নিউজিল্যান্ডকে হাল্কাভাবে না নেয়ার জন্য ভারতীয় দলকে সতর্ক করে দিয়েছেন ১৯৮৩ বিশ্বকাপ জয়ী অধিনায়ক দেব। তার মতে, নিউজিল্যান্ডের অনেক খেলোয়াড়েরই ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগ (আইপিএল) খেলার যথেষ্ট অভিজ্ঞতা রয়েছে। তাই কিউইদের দুর্বল ভাবা মোটেই ঠিক হবে না মনে করছেন তিনি।

কপিল দেব ভারতীয় অধিনায়ক কোহলির প্রশংসা করলেও বর্তমান সময়ে ভিন্নধর্মী মানসিকতার কথা উল্লেখ করেন।

তিনি বলেন, ‘তরুণ ক্রিকেটারদের মানসিকতা ভিন্ন। ’৮০র দশকে ভারতীয় দলের মানসিকতা আগ্রাসী ছিলো না। আমি মনে করছি, আজকের দিনে ঈশ্বর এই ছেলেদের মানসিকতায় পরিবর্তন এনেছে। ’

প্রধান কোচ হিসেবে নিজ মাঠে এটাই হবে অনিল কুম্বলের প্রথম এসাইনমেন্ট এবং ক্যারিবিয়ান সিরিজে ১৭ উইকেট শিকার করা রবিচন্দ্রন অশ্বিনসহ তিন স্পিনারকে নিয়েই তিনি দল সাজাবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

দীর্ঘদিনে ইনজুরি কাটিয়ে মিডিয়াম পেসার মোহাম্মদ সামি ফেলায় স্বাতগিকরা আরো উজ্জীবিত হবে।

নিউজিল্যান্ডকে মাত্র চার টেস্টে অধিনায়কত্ব করা উইলয়ামসন বলেন, নিজের নেতৃতের শুরুতেই এমন কঠিন এসাইনমেন্ট পেয়ে দারুণ উত্তেজিত তিনি।

তিনি বলেন, ‘আমাদের দলে অনেক ভালো ক্রিকেটার রয়েছে এবং আমরা আমাদের ক্রিকেটটা উপভোগ করছি। আমাদের উন্নতি করতে করতে হবে অধিনায়ক হিসেবে এটাই আমার ফোকাস। ’

বোলিং বিভাগে সকলের নজর থাকবে ভারতীয় বংশোদ্ভূত নিউজিল্যান্ড লেগ স্পিনার ইশ সোধির ওপর।

সিরিজ শুরুর আগ মুহূর্তে পায়ের গোঁড়ালির ইনজুরির কারণে টিম সাউদি নাম প্রত্যাহার করায় ফাস্ট বোলিংয়ের গুরুদায়িত্বটা বর্তাবে ট্রেন্ট বোল্টের ওপর।

ভারতের মাটিতে এখন পর্যন্ত কোন টেস্ট সিরিজ না জেতা নিউজিল্যান্ড ২০১২ সালে স্বাগতিকদের কাছে দুই ম্যাচের সিরিজে হোয়াইট ওয়াশ হয়েছিল।


মন্তব্য