kalerkantho

রবিবার । ১১ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


মুশফিকের গোপন রহস্য ফাঁস করলেন স্টেভেন লিঞ্চ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ২৩:৩৪



মুশফিকের গোপন রহস্য ফাঁস করলেন স্টেভেন লিঞ্চ

বাংলাদেশের টেস্ট অধিনায়ক মুশফিকুর রহিমের গোপন রহস্য ফাঁস করলেন স্টেভেন লিঞ্চ। তার এমন একটি কীর্তি রয়েছে হয়তো অনেকেরই জানা নেই, সেটাই জানালেন তিনি।

    

মুশফিকুর রহিমের এমন রেকর্ড গড়তে পারেননি শচীন টেন্ডুলকার, ব্রায়ান লারা, রিকি পন্টিং বা ওয়াসিম আকরামের মতো বিশ্বসেরা তারকারাও। একই মাঠে ১০০ বা তার অধিক আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলা একমাত্র ক্রিকেটার মুশফিকুর রহিম! 

এমন এক তথ্য উঠে এসেছে ক্রিকেটের সবচেয়ে জনপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল ইএসপিএন ক্রিকইনফোতে। যেখানে সংবাদ মাধ্যমটির বিশেষজ্ঞ স্টেভেন লিঞ্চের কাছে খালিদ জাফর নামের এক পাকিস্তানি জানতে চান, একই মাঠে ১০০টির বেশি আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলা ক্রিকেটার কে?

স্টেভেন জানান, ক্রিকেটের তিন ফরম্যাট মিলিয়ে একমাত্র ক্রিকেটার হিসেবে বাংলাদেশের মুশফিকুর রহিম এখন পর্যন্ত মিরপুরের শের-ই-বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ১০০টির বেশি (১০৫টি) ম্যাচ খেলেছেন।

একই মাঠে বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান খেলেছেন দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৯৭টি ম্যাচ। সেই মাঠে ৯৩টি ম্যাচ খেলে তৃতীয় অবস্থানে তামিম ইকবাল। এমনকি বাংলাদেশিদের বাইরে একই মাঠে সর্বোচ্চ ম্যাচ খেলা ক্রিকেটার হলেন জিম্বাবুয়ের হ্যামিল্টন মাসাকাদজা (৯১ ম্যাচ) ও এলটন চিগুম্বুরা (৮৯)। তারা নিজ দেশের মাঠ হারারে স্পোর্টস ক্লাবে ম্যাচগুলো খেলেছেন।

শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে মুশফিক এখন পর্যন্ত ৭৩টি ওয়ানডে ম্যাচ খেলেছেন। যেখানে সাদা পোশাকের ম্যাচ রয়েছে ১৩টি। টি-টোয়েন্টি ম্যাচ ১৯।  

অপরদিকে টি-২০ ম্যাচে এক মাঠে সর্বোচ্চ অবস্থানে রয়েছেন উইকেট রক্ষক-ব্যাটসম্যান মুশফিকই। আর দুবাইয়ের মাঠে ১৮টি টি-২০ খেলে দ্বিতীয় অবস্থানে পাকিস্তানের উমর আকমল।

এ ছাড়াও ৫০ ওভারের ক্রিকেটে এক মাঠে সবচেয়ে বেশি ম্যাচ খেলার রেকর্ড রয়েছে পাকিস্তানের সুইং মাস্টার ওয়াসিম আকরামের। তিনি সংযুক্ত আরব আমিরাতের মাঠ শারজায় সর্বোচ্চ ৭৭টি ম্যাচ খেলেছেন।


মন্তব্য