kalerkantho

শুক্রবার । ৯ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


আজ ছয় বলে ছয় ছক্কার দিন

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৮:১৬



আজ ছয় বলে ছয় ছক্কার দিন

২০০৭ সালের ১৯ সেপ্টেম্বর। ডারবানের কিংসমিড স্টেডিয়ামে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্বের ম্যাচে মুখোমুখি ভারত-ইংল্যান্ড।

হঠাৎ শুরু হলো যুবরাজের তান্ডব! আন্তর্জাতিক ক্রিকেট অবাক বিষ্ময়ে দেখল কীভাবে ওভারের ছয়টি বল যুবরাজের ব্যাটের তোপে গিয়ে পড়ল সীমানার বাইরে!  

স্টুয়ার্ট ব্রডের সারাজীবনে মন থেকে এই কলঙ্ক ঘুচবে না। তার ওভারেই যে এই কান্ড! প্রথম বল মিড উইকেটের ওপর দিয়ে মাঠের বাইরে। এরপর ব্যাকওয়ার্ড স্কয়ার লেগ দিয়ে দ্বিতীয় বল। তৃতীয় বলটাও সীমানা পেরোল এক্সট্রা কাভার দিয়ে। চতুর্থ বলটি ফুলটস হওয়ায় যুবরাজ যেন মনের মাধুরী মিশিয়ে সেটি সীমানাছাড়া করলেন। ততক্ষণে ৪ বলে ৪ ছয় খেয়ে ব্রডের মাথায় হাত! সবাই মিলে তাকে বুঝিয়ে সুঝিয়ে আবার বল করতে পাঠালেন। যুবরাজ তাকে পাত্তাই দিলেন না। পরের দুটি বল যথাক্রমে মিড উইকেট আর মিড অনের উপর দিয়ে সীমানাছাড়া করে ষোলকলা পূর্ণ করলেন।

পরে জানা গিয়েছিল, ইংলিশ বোলার এন্ড্রু ফ্লিনটফ যুবরাজকে স্লোজিং করেছিলেন। এতে ক্ষেপে গিয়ে যুবরাজ ব্রডের উপরে রাগটা ঝাড়েন। ম্যাচটি ভারত ১৮ রানে জিতে নেয়। ম্যান অব দ্য ম্যাচ যুবরাজ টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে ছয় বলে ৬ ছক্কার পাশাপাশি ১২ বলে দ্রুততম অর্ধশতকের রেকর্ড গড়েন। যা এখনও কেউ ভাঙ্গতে পারেনি।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে মাত্র দুই জন ক্রিকেটার এই কীর্তি গড়েছেন। হার্শেল গিবস ওয়ানডেতে ছয় বলে ছয় ছক্কার একমাত্র কীর্তির মালিক। ২০০৭ বিশ্বকাপে হল্যান্ডের বোলার ড্যান ফন বাঙ্গের কপাল পুড়েছিল এই মারকুটে ব্যাটসম্যানের জন্য। আর আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে ৬ বলে ৬ ছক্কার রেকর্ডধারী একমাত্র যুবরাজ।


মন্তব্য