kalerkantho

শনিবার । ১০ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৯ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


‘বিদেশের মাটিতে কোহলির আসল পরীক্ষা’

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১২:০৮



‘বিদেশের মাটিতে কোহলির আসল পরীক্ষা’

বিদেশের মাটিতে টেস্ট অধিনায়ক বিরাট কোহলির অধিনায়কত্বের আসল পরীক্ষা হবে বলে মনে করেন অস্ট্রেলিয়ার সাবেক দলপতি অ্যালান বোর্ডার। তিনি বলেন, ‘অধিনায়ক হিসেবে ভালো কোহলি।

তবে কোহলির অধিনায়কত্বের আসল পরীক্ষা বিদেশের মাটিতেই হবে। ’

২০১৪ সালের ডিসেম্বরে অস্ট্রেলিয়ার সফরের মাঝপথে টেস্ট অধিনায়কত্ব থেকে সরে যান মহেন্দ্র সিং ধোনি। ফলে ভারতের টেস্ট অধিনায়কের দায়িত্ব গিয়ে বর্তায় কোহলির কাঁধে। সেই দায়িত্ব নিয়ে নিজের অধিনায়কত্বের ঝলক দেখিয়েছেন কোহলি। দায়িত্ব পাবার পর চারটি সিরিজে অধিনায়কত্ব করেছেন কোহলি।

বাংলাদেশের বিপক্ষে এক ম্যাচের সিরিজটি ড্র ছিলো। এরপর শ্রীলংকার মাটিতে তিন ম্যাচের সিরিজ ২-১ ব্যবধানে জিতে কোহলির ভারত। অধিনায়ক হিসেবে প্রথম সিরিজ জয়ের পর দেশের মাটিতে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে চার ম্যাচের সিরিজ ৩-০ ব্যবধানে জিতে কোহলির দল। তাই কোহলির অধিনায়কত্বের প্রশংসা ছড়িয়েছে সর্বত্র।

তবে অধিনায়ক হিসেবে কোহলি এখনো আসল পরীক্ষার সম্মুখীন হননি বলে মনে করেন বোর্ডার। তার মতে, অধিনায়ক হিসেবে কোহলিকে আসল পরীক্ষা দিতে হবে বিদেশের মাটিতে। তিনি বলেন, ‘আমি কোহলির অধিনায়কত্ব পছন্দ করি। প্রতিটি সিরিজেই তার অধিনায়কত্বের উন্নতি হচ্ছে। সামনের বছরগুলোতেও উন্নতি হবে। তবে কোহলিকে আসল পরীক্ষা দিতে হবে বিদেশের মাটিতে। দক্ষিণ আফ্রিকা, ইংল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের কন্ডিশনে সিরিজ জিততে পারলেই কোহলির অধিনায়কত্বের আসল প্রমাণ পাওয়া যাবে। ’

কোহলির অধিনায়কত্ব নিয়ে কথা বলার পাশাপাশি, ধোনির অধিনায়কত্ব নিয়ে কথা বলেছেন বোর্ডার। তার মতে, ‘ওয়ানডে ও টুয়েন্টি টুয়েন্টি ফরম্যাটে অধিনায়ক হিসেবে দারুন ধোনি। তবে টেস্টে নয়। টেস্টে অধিনায়ক হিসেবে নিজেকে মেলে ধরতে পারেনি সে। দেশের মাটিতে দুর্দান্ত করেছে সে। তবে বিদেশের মাটিতে করা পারফরমেন্সটাই আসল। কিন্তু সেখানে সে সফল নয়। শুধু বিদেশেই নয়, সবখানেই অধিনায়ক হিসেবে ভালো পারফরমেন্স করেছে ক্লাইভ লয়েড ও ভিভ রিচার্ডস। সামনে থেকে দলকে নেতৃত্ব দিয়েছে তারা এবং অনেক ম্যাচও জিতেছেন তারা। ’


মন্তব্য