kalerkantho

শনিবার । ১০ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৯ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


প্যারা অলিম্পিকে এক লাফেই কোটিপতি দরিদ্র থাঙ্গাভেলু

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১১ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৭:১৬



প্যারা অলিম্পিকে এক লাফেই কোটিপতি দরিদ্র থাঙ্গাভেলু

হতদরিদ্র পরিবারের সন্তান। আবার প্রতিবন্ধী।

দরজায় দরজায় ঘুরেছেন। কিন্তু ২১ বছরের
মারিয়াপ্পান থাঙ্গাভেলুকে কেউ কাজ দেয়নি। সবজি বিক্রেতা মায়ের সাথে এক কামরায় বাস। অথচ সেই থাঙ্গাভেলু রাতারাতি কোটিপতি হয়ে গেলেন। তাকে এখন ভারতের গর্ব বলছে সবাই। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি অভিনন্দন জানিয়েছেন। তামিল নারুর মুখ্যমন্ত্রী জয়ললিতা তার জন্য দুই কোটি রুপি পুরস্কার ঘোষণা করেছেন। থাঙ্গাভেলু এখন জাতীয় বীর। দেশে তার জন্য অপেক্ষা করছে আরো কতো পুরস্কার! গল্পের মতোই জীবনের সবকিছু পাল্টে যেতে শুরু করেছে থাঙ্গাভেলুর।

থাঙ্গাভেলু রিওর প্যারা অলিম্পিকে সোনা জিতেছেন হাই জাম্পে। শারীরিক প্রতিবন্ধীদের এই অলিম্পিকের ইতিহাসেই এটা ভারতের তৃতীয় সোনা। পুরুষদের টি৪২ ইভেন্টে সোনা জেতা লাফে থাঙ্গাভেলু এখন অন্য উচ্চতায়। রিও থেকে জীবন যুদ্ধ জয় করেই ফিরবেন তিনি। জয়ললিতা পুরস্কার ঘোষণা করে বলেছেন, "প্যারা অলিম্পিকে এই প্রথমই তো কোনো ভারতীয় হাই জাম্প ইভেন্টে সোনা জিতলো। "

রিওর গ্রীষ্ম কালিন অলিম্পিক শেষ হলো কদিন আগে। সেখানে রুপা জেতা পিভি সিন্ধু অন্ধ্র প্রদেশের সরকারের কাছ থেকে পেয়েছেন ৩ কোটি রুপি পুরস্কার। ব্রোঞ্জ জয়ী কুস্তিগির সাক্ষি মালিক ও জিমন্যাস্টিক্সে চতুর্থ হওয়া দিপা কর্মকার নগদ অর্থের সাথে দামী সব উপহার পেয়েছেন। এবার থাঙ্গাভেলুদের পালা। ৫ বছর বয়সে এক পায়ের হাটুর নীচ থেকে পুরোটা হারিয়েছেন। কিন্তু হেরে যাননি। তার ইভেন্টেই বরুন ভাট্টি জিতেছেন ব্রোঞ্জ। এই প্রথম প্যারা অলিম্পিকের কোনো এক ইভেন্টে দুটি পদক জিতলো ভারত। বোঝা যাচ্ছে অলিম্পিকের মতো প্যারা অলিম্পিকের বিজয়ীদেরও এবার ভারত বড় রকমের নগদ পুরস্কারে ভাসাবে।


মন্তব্য