kalerkantho

মঙ্গলবার । ৬ ডিসেম্বর ২০১৬। ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৫ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


রুমানার হ্যাটট্রিকে আয়ারল্যান্ডে মেয়েদের সিরিজ জয়

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১১ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১০:০৭



রুমানার হ্যাটট্রিকে আয়ারল্যান্ডে মেয়েদের সিরিজ জয়

স্বাগতিক আয়ারল্যান্ডকে বাংলাদেশের মেয়েরা মাত্র ১০৭ রানের টার্গেট দিয়েছিলেন। না।

এটি টি-টোয়েন্টি না। ওয়ানডে ম্যাচ। ওয়ানডেতে এমন টার্গেট দিয়ে জেতা যায় নাকি! কিন্তু বাংলাদশের ইতিহাসের প্রথম ওয়ানডে হ্যাটট্রিকটি করলেন লেগ স্পিনার রুমানা আহমেদ। বাকি বোলাররাও আঁটোসাঁটো বোলিং করলেন। আর তাতে আইরিশ মেয়েদের মাত্র ৯৬ রানে আটকে ফেলে ১০ রানের জয় তুলে নিল জাহানারা আলমের দল। সেই সাথে ৩ ওয়ানডের সিরিজ ১-০ তে জিতে নিল তারা। প্রথম দুই ওয়ানডে বৃষ্টিতে পণ্ড হয়েছে।  

টস জিতে ব্যাট করতে নেমে বাংলাদেশ দল খুব বিপদেই পড়েছিল। প্রথম ৫ উইকেট তারা হারায় মাত্র ২৫ রানে। শীর্ষ ব্যাটারদের মধ্যে টিকে ছিলেন ওপেনার সানজিদা ইসলাম। তিনি খেলেছেন দলীয় সর্বোচ্চ ৩৩ রানের ইনিংস। পরিশ্রমী ইনিংস ওটি। এর সাথে রিতু মণির ১৩, অধিনায়ক জাহানারার ১৪ ও নাহিদা আখতারের ১১ যোগ হয়। অতিরিক্ত থেকে আসে ২৬ রান। ৪০.১ ওভারে অল আউট হয় বাংলাদেশ দল।

বোলারদের জন্য কাজটা ছিল খুব কঠিন। আইরিশ দুই ওপেনার গড়েন ৫২ রানের জুটি। তাতে জাহানারাদের কাজ আরো কঠিন হয়ে যায়। কিন্তু ব্রেকথ্রু দেন অফ স্পিনার খাদিজা তুল কুবরা। তিনি হ্যাটট্রিকের সুযোগ তৈরি করেন। হয়নি। কিন্তু মাঝে আরো দুই উইকেট পড়ার পর আঘাত হানেন রুমানা। কিম গ্রাথ, ক্লার শিলিংটন ও ম্যারি ওয়ালড্রনকে তুলে নিয়ে মেয়েদের ওয়ানডে ইতিহাসের নবম হ্যাটট্রিক করেন রুমানা। তিনটি আউটই এলবিডাব্লিউ। আরেক লেগ স্পিনার ফাহিমা খাতুন দুই উইকেট তুলে নিয়ে জয় নিশ্চিত করেন। ৩৭.৫ ওভারে অল আউট হয় আয়ারল্যান্ড। ফাহিমা ও খাদিজা ২টি করে উইকেট নেন। সিরিজের সেরা খেলোয়াড় হওয়া রুমানা নেন ওই তিন উইকেটই।  


মন্তব্য