kalerkantho

রবিবার । ১১ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


তারপরও বাংলাদেশে যাবেন না ইংল্যান্ড অধিনায়ক মরগ্যান!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১১:০০



তারপরও বাংলাদেশে যাবেন না ইংল্যান্ড অধিনায়ক মরগ্যান!

ইংল্যান্ডের ক্রিকেট পরিচালক অ্যান্ড্রু স্ট্রস শনিবার পর্যন্ত সময় বেঁধে দিয়েছেন। কারা বাংলাদেশে যেতে চান আর কারা চান না তা জানাতে হবে এই সময়ে।

সেই সাথে এও বলে দিয়েছেন যারা যাবেন না ইংল্যান্ড দলে তাদের ভবিষ্যতের কোনো নিশ্চয়তা নেই। এই ঝুঁকি বুঝি মাথা পেতে নিতে যাচ্ছেন ইংল্যান্ডের সীমিত ওভারের অধিনায়ক এউইন মরগ্যান। উপমহাদেশে আগের দুই দফা সন্ত্রাসী ঘটনা নিজ চোখে দেখার পর বাংলাদেশ সফরে যাওয়ার ইচ্ছে বেঁচে নেই তার। একই পরিস্থিতিতে নিজেকে আবার ফেলতে চান না।

২০১০ সালে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুর হয়ে আইপিএলে খেলেন মরগ্যান। ভারত তখন রাজনৈতিক অস্থিরতা। এমন এক দিনে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের বিপক্ষে ম্যাচের আগে চিন্নাস্বামি স্টেডিয়ামের বাইরে বোমা পড়ল। তবু খেলাটা হলো। কিন্তু পরে ব্যাঙ্গালোর থেকে ম্যাচ সরিয়ে নেওয়া হয়।

মরগ্যানের আরেকটি বাজে অভিজ্ঞতা ২০১৩ সালের। ঢাকায়। সেবার ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট খেলেছেন গাজী ট্যাংক ক্রিকেটার্সের হয়ে। নির্বাচন পূর্ববর্তী সহিংসতার অভিজ্ঞতা তখন হয়েছে মরগ্যানের।

"ধ্বংসাত্মক পরিস্থিতির মধ্যে আগেও এক দুইবার পড়েছি আমি। নিরাপত্তা ছিল। তখন আমি নিজেকে বলেছি এমন পরিস্থিতিতে নিজেকে আর ফেলবো না। " মরগ্যান বলেছেন, "আন্তর্জাতিক ক্রিকেট বা যে ক্রিকেটই খেলুন, সেখানে ভিন্ন বিষয় নিয়ে দুশ্চিন্তার সুযোগ নেই। এটা আপনার জীবনের সেরা মুহূর্ত হতে হবে। এটা এমন কিছু হওয়া উচিত যা আপনি চান এবং মনোযোগ দিয়ে ভালো করতে চান। "

নিরাপত্তা নিয়ে দুর্ভাবনায় থাকলে ক্রিকেটে মন দেওয়া সম্ভব না। এটাই মরগ্যানের কথা। আগের স্মৃতি মনে করে বলেছেন, "ব্যাঙ্গালোরে এক ম্যাচ খেললাম। মাঠের কাছেই বোমা পড়ল। আমরা সোজা বিমানবন্দরে চলে গেলাম। ওটা একটা ঘটনা। আরেকটি বাংলাদেশে। ঘরোয়া ক্রিকেটে খেলছিলাম। রাজনৈতিক নির্বাচনের সময় সবকিছু অবিশ্বাস্যরকম সহিংস হয়ে উঠেছিল। " এই মাসের শেষে ইংল্যান্ডের দুটি টেস্ট ও তিনটি ওয়ানডের সিরিজ খেলতে বাংলাদেশে আসার কথা। কিন্তু মরগ্যানের সম্ভবত আসা হচ্ছে না।


মন্তব্য