kalerkantho

মঙ্গলবার । ৬ ডিসেম্বর ২০১৬। ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৫ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


ইংল্যান্ডের বিপক্ষে পাকিস্তানের দাপুটে জয়

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১০:০৮



ইংল্যান্ডের বিপক্ষে পাকিস্তানের দাপুটে জয়

নতুন অধিনায়ক, নতুন পাকিস্তান? এমন আগাম কিছু ক্রিকেটের ক্ষেত্রে বলা বিপজ্জনক। আর যে দলটি সম্পর্কে বলছেন সেটি পাকিস্তান হলে তো আরো বিপজ্জনক! কিন্তু নতুন অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদের টি-টোয়েন্টি সাফল্য তো শতভাগ।

গতকালই ম্যানচেস্টারে অধিনায়ক হিসেবে অভিষেক হয়েছে তার। সফরের একমাত্র টি-টোয়েন্টিতে স্বাগতিক ইংল্যান্ডকে ৯ উইকেটে হারিয়েছে পাকিস্তান।

শহীদ আফ্রিদি যুগের পর টি-টোয়েন্টি সরফরাজ যুগের শুরু এই ম্যাচ দিয়ে। সেই সাথে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে পাকিস্তানের বাজে পারফরম্যান্সের দুঃস্মৃতি ভোলার দিনও শুরু। টেস্ট সিরিজ ড্র। কিন্তু ওয়ানডে সিরিজের কথা পাকিস্তান ভুলে যেতে চাইবে। শেষ পর্যন্ত ২০১০ সালের স্পট ফিক্সিং কেলেঙ্কারির পরের প্রথম ইংল্যান্ড সফর তারা জয় দিয়েই শেষ করল। ৩১ বল হাতে রেখে জয়। সোজা কথা না।

এই সফরে পাকিস্তান তাদের সবচেয়ে ভালো সীমিত ওভারের বোলিং ও ফিল্ডিং দেখাল। গত এপ্রিলের বিশ্বকাপ ফাইনাল খেলা দলটি নামিয়েছিল ইংল্যান্ড। কিন্তু তাদের ৭ উইকেটে ১৩৫ রানে থামায় পাকিস্তান। শেষ ১০ ওভারে আসে মাত্র ৫৮ রান। পাওয়ার প্লের পর মাত্র তিনটি বাউন্ডারি মারতে পেরেছে ইংলিশরা। অ্যালেক্স হেলস ৩৭ ও জ্যাসন রয় ২১ রান করেছেন। বড় রান নেই। ওয়াহাব রিয়াজ ১৮ রানে নিয়েছেন ৩ উইকেট। ২টি করে উইকেট হাসান আলি ও ইমাদ ওয়াসিমের।

জয়ের কাজ অনেকটাই করে দিয়ে গেছে পাকিস্তানের ওপেনিং জুটি। ১০৭ রান এসেছে ১১ ওভারে। দ্বাদশ ওভারের প্রথম বলে একমাত্র উইকেটটি পেয়েছে ইংল্যান্ড। ৩৬ বলে ৭ চার ও ৩ ছক্কায় ৫৯ রান নিয়ে ফিরেছেন শারজিল খান। কিন্তু অন্য ওপেনার খালিদ লতিফ জয় নিয়েই মাঠ ছেড়েছেন। ৪২ বলে ৮ চার ও ২ ছক্কায় ৫৯ রানে অপরাজিত তিনি। তবে ম্যাচের সেরা খেলোয়াড় ফাস্ট বোলার ওয়াহাব।


মন্তব্য