kalerkantho

রবিবার। ৪ ডিসেম্বর ২০১৬। ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৩ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


'নিজের সর্বোচ্চটা দিয়ে কাজ করতেই আমি এখানে এসেছি'

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ২২:৫১



'নিজের সর্বোচ্চটা দিয়ে কাজ করতেই আমি এখানে এসেছি'

শেষ পর্যন্ত বাংলাদেশকে দিয়ে কোন জাতীয় দলের ক্রিকেট কোচ হওয়ার স্বপ্ন পূরণ করলেন কিংবদন্তী কোর্টনি ওয়ালশ। খেলোয়াড় হিসেবে ১৮ বছরের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অনেক কিছুই অর্জন করেছেন, হয়েছেন জীবন্ত কিংবদন্তী।

অনেক স্বপ্নই পূরণ করেছেন তিনি।

খেলোয়াড়ী জীবন শেষে তবু নতুন একটি স্বপ্ন ছিল কোর্টনি ওয়ালশের। কোনো আন্তর্জাতিক দলকে কোচিং করানো। বাংলাদেশের বোলিং কোচের প্রস্তাব গ্রহণ করে সেই স্বপ্ন পূরণ করলেন কিংবদন্তী এ ফাস্ট বোলার।

লম্বা ভ্রমণ শেষে গতকাল শনিবার রাতে ঢাকায় পা রেখেছেন ওয়ালশ। আজ রবিবার দুপুরে চুক্তির আনুষ্ঠানিকতা সারতে এসেছিলেন বিসিবিতে। পরে মুখোমুখি হলেন সংবাদ সম্মেলনের। জানালেন কেন লুফে নিয়েছেন বাংলাদেশের প্রস্তাব।

ওয়ালশ বলেন, ‘সব সময়ই স্বপ্ন দেখতাম একটি আন্তর্জাতিক দলের সঙ্গে সম্পৃক্ত হওয়ার। সুযোগটি নিয়ে খুব গভীরভাবে ভাবতে হয়নি আমাকে। এটা এমন একটা কিছু, যা আমি করতে চেয়েছিলাম। এটির অংশ হতে পেরে তাই আমি খুশি। ’

তার পরও ওয়ালশের মনে সংশয়ের সামান্য যে দোলাচল ছিল, সেটি দূর হয়ে যায় বিসিবি’র প্রধান নির্বাহীর কথায়। বিসিবি’র আগ্রহের শীর্ষে নিজের নাম জানতে পেরে সিদ্ধান্ত নিতে আর দেরি করেননি ৫৪ ছুঁইছুঁই সাবেক এই ফাস্ট বোলার।

তিনি বলেন, ‘মনে আছে, যখন নিজামের (বিসিবি’র প্রধান নির্বাহী নিজাম উদ্দিন আহমেদ) সঙ্গে প্রথম কথা হলো এবং আগ্রহের কথা জানালো, আমি বলেছিলাম একটু ভাবতে দাও। ’

ওয়ালশ বলেন, ‘আলোচনার অগ্রগতি ও পিছুটান চলছিল। কিন্তু যখন সে জানালো আমি ওদের প্রথম পছন্দ, তখন সত্যিই গুরুত্ব দিয়ে ভাবলাম। এটা বলে দিচ্ছিল যে, ওদের ক্রিকেটকে ওরা পরের ধাপে নিয়ে যেতে চায়। আলোচনা চলল এবং আজ আমি এখানে। ’ তার আশা, প্রধান কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহের সঙ্গে মিলে বাংলাদেশকে এগিয়ে নিতে পারবেন সাফল্যের পথে।

তিনি আরো বলেন, ‘নিজের সর্বোচ্চটা দিয়ে প্রধান কোচের সঙ্গে মিলে কাজ করতেই আমি এখানে এসেছি। দু’জনে মিলে আমরা বাংলাদেশের ক্রিকেটে দারুণ কিছু সাফল্য এনে দিতে পারি। ’ 


মন্তব্য