kalerkantho

শনিবার । ১০ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৯ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


মাস্টার্স ক্রিকেটের ফাইনালে হাবিবুল ও জাভেদের দল

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৬:১৩



মাস্টার্স ক্রিকেটের ফাইনালে হাবিবুল ও জাভেদের দল

মাস্টার্স ক্রিকেট কার্নিভালে দেখা গেল হাবিবুল বাশার ও জাভেদ ওমর বেলিমের ব্যাটের ঝলক। হাবিবুল ফাইনালে নিয়েছেন তার দল খুলনা মাস্টার্সকে।

আর জাভেদের ব্যাটে চড়ে ফাইনালে গেছে অলস্টার্স মাস্টার্স। হাবিবুলরা ১৬ রানে হারিয়েছেন ঢাকা মেট্রো মাস্টার্সকে। আর জাভেদরা ৬ উইকেটে জিতেছেন ঢাকা ডিভিশন মাস্টার্সের বিপক্ষে।

শনিবার কক্সবাজারের শেখ কামাল আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে সাবেক ক্রিকেটারদের সেমিফাইনালের লড়াই জমে ওঠে। বাংলাদেশের প্রথম ওয়ানডে সেঞ্চুরিয়ান মেহরাব হোসেন অপি দারুণ একটি ফিফটি করলেন। তাতে ১৫ ওভারে ৭ উইকেটে ৯৭ রান করে ঢাকা ডিভিশন। অপি খেলেন ৪৫ বলে ৫৭ রানের ইনিংস। ৪টি ছক্কা মেরেছেন এই স্টাইলিস্ট ওপেনার। ১৪ রানে ২টি উইকেট পান পেসার হাসিবুল হোসেন শান্ত।

জবাবে, শুরুতে হোঁচট খায় অলস্টার্স। কিন্তু বরাবরের মতো এক প্রান্ত আগলে রাখার কৃতিত্ব দেখান জাভেদ। ইনিংস সর্বোচ্চ ৪২ রান করে দলকে জিতিয়ে মাঠ ছাড়েন সাবেক জাতীয় ওপেনার। ৩ বল বাকি থাকতে জিতেছে তার দল। জাভেদ জিতেছেন ম্যাচসেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কার।

অন্য সেমিফাইনালে সাবেক অধিনায়ক ও বর্তমান নির্বাচক হাবিবুল ২৮ বলে করেছেন ৩২ রান। তিনি ও জামাল বাবু ওপেন করেন। বাবু করেন ১৮ রান। হারুনুল রশিদ লিটন করেন ১৭। তবে তানভির আহমেদ তিমিরের পেস তোপে বিপদে পড়েছিল খুলনা বিভাগ। তিমির নেন ৫ উইকেট। তারপরও ১৫ ওভারে ১০৬ রান করে খুলনা।

জবাবে, ঢাকা মেট্রোর শুরুটা ভালো হয়েছিল। উদ্বোধনী জুটিতে ২৩ রান করে। এরপর নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকে তারা। এক প্রান্ত আগলে নিয়ামুর রশিদ রাহুল ২৭ বলে ৩৬ রান করেন। কিন্তু সঙ্গী পাননি। হেরেছে দল। সফিউদ্দিন বাবু ও মুরাদ খান ২টি করে উইকেট নেন।


মন্তব্য