kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৭ জানুয়ারি ২০১৭ । ৪ মাঘ ১৪২৩। ১৮ রবিউস সানি ১৪৩৮।


বিশ্বকাপের প্রথম সেমি খেলতে নামছে ইংল্যান্ড-নিউজিল্যান্ড

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৩০ মার্চ, ২০১৬ ০৯:১৯



বিশ্বকাপের প্রথম সেমি খেলতে নামছে ইংল্যান্ড-নিউজিল্যান্ড

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের প্রথম সেমিফাইনালে আজ বুধবার ইংল্যান্ড মুখোমুখি হচ্ছে নিউজিল্যান্ডের। দিল্লির ফিরোজ শাহ কোটলা মাঠে এই ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। যে চারটে দল ওয়ার্ল্ড টি-টোয়েন্টির সেমিফাইনালে উঠেছে, তার মধ্যে সম্ভবত ইংল্যান্ডই একমাত্র দল যারা তাদের বোলিং আক্রমণে স্পিনারদের তুলনায় পেসারদের ওপর বেশি নির্ভরশীল। ডেভিড উইলি, ক্রিস জর্ডন, বেন স্টোকস, লিয়াম প্লাঙ্কেটরা উপমহাদেশের পিচে বেশ টাইট লাইনে বল করার দক্ষতা দেখিয়েছেন গোটা টুর্নামেন্ট জুড়েই।

সেমিফাইনালের আগে ইংল্যান্ড অধিনায়ক ইওন মর্গ্যান স্বীকারও করলেন এই সিমাররাই তার বড় ভরসা: হ্যাঁ, সত্যিই আমাদের সিমাররা আগাগোড়া খুব ভাল করেছে। এই টুর্নামেন্টে আসার আগে আমরা একেবারে খোলা মনে এসেছিলাম, যে রকম কন্ডিশনই পাই না কেন তার সঙ্গেই মানিয়ে নেব, এবং কালকেও তার কোনও ব্যতিক্রম হবে না।

আমরা খেলছি বেশ তরতাজা একটা উইকেটে, যাতে বেশ ভাল ঘাসের আচ্ছাদন আছে। ফলে আমাদের শেষ দুটো খেলার তুলনায় কাল একটু অন্যরকম হবে ধরে নিতে পারি। অন্যদিকে নিউজিল্যান্ড হল টুর্নামেন্টে একমাত্র দল যারা এ পর্যন্ত প্রতিটি ম্যাচে জিতেছে, এবং তাদের ইশ সোধি বা স্যান্টনারের মতো স্পিনাররা ভারতের পিচে যে ধরনের ভেলকি দেখাচ্ছেন তাতে অনেকেই তাদের পরিষ্কার ফেভারিট ধরছেন।

দিল্লিতে প্রথম সেমিফাইনালের আগে নিউজিল্যান্ড অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন অবশ্য বলছিলেন যদিও দিল্লিতে ইংল্যান্ড দুদিন আগেই একটা ম্যাচ খেলার সুযোগ পেয়েছে, তিনি কোনও দলকেই এগিয়ে রাখছেন না: ইংল্যান্ড সৌভাগ্যবান, এই কন্ডিশনে বেশ কয়েকবার এর মধ্যেই তারা খেলতে পেয়েছে ঠিকই, কিন্তু টোয়েন্টি টোয়েন্টি এমন এক ধরনের ক্রিকেট যাতে যা খুশি ঘটে যেতে পারে। টুর্নামেন্টে আসা প্রতিটা দলই শক্তিশালী, তারা প্রত্যেকে বিশ্বাস করেছিল শেষ পর্যন্ত তারা যেতে পারে। আমরাও তা থেকে আলাদা নই, ইংল্যান্ডও নয়। কাজেই আমি শুধু বলব আমাদের ছেলেরা দারুণ উৎসাহের সঙ্গে কাল রাতে একটা আকর্ষণীয় ম্যাচের দিকে তাকিয়ে আছে।

 


মন্তব্য