kalerkantho


কোহলি-আনুশকার পক্ষে গাভাস্কারের ব্যাটিং!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৯ মার্চ, ২০১৬ ১৮:৫০



কোহলি-আনুশকার পক্ষে গাভাস্কারের ব্যাটিং!

ভারতকে একা হাতে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে তুলে নিলেন বিরাট কোহলি। আবার আলোচনায় চলে এলেন আনুশকা শর্মা! তাতে কিন্তু রেগে মেগে কাই কোহলি। কারণ, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আনুশকাকে নিয়ে ট্রল হচ্ছে। যার সবটাতে কোহলির ভক্ত সাজতে গিয়ে অপমান করা হচ্ছে বলিউড অভিনত্রীকে। প্রেমিকা সাবেক হয়েছেন কি না তা কখনো মুখে বলেননি কোহলি। কিন্তু এইসব দেখেশুনে আনুশকার পাশেই দাঁড়িয়েছেন। টুইটারে আনুশকা বিরোধীদের দাতভাঙ্গা জবাব দিয়েছেন! এদিকে ভারতের কিংবদন্তি ব্যাটসম্যান সুনীল গাভাস্কারও আনুশকার পক্ষই নিয়েছেন মিডিয়ায়।

"শেম" লেখা ছবি পোস্ট করেছেন কোহলি। লিখেছেন, "আনুশকা শর্মাকে নিয়ে যারা ট্রল করছে তাদের লজ্জা থাকা উচিৎ। তার কাছ থেকে আমি সবসময় কেবল ইতিবাচক ব্যাপারই পেয়েছি। " এই টুইটের পর অনেকে হয়তো সম্পর্কটা নিয়ে নড়েচড়ে বসবেন। নানা জল্পনা কল্পনা এর মধ্যে শুরু হয়ে গেছে।

একসময় ভারতীয় ভক্তরা কোহলির অফ-ফর্মের জন্য আনুশকাকে দায়ী করতো। এখন আবার আগুন ফর্মের কোহলিকে তারা দেখতে পাচ্ছে আনুশকার সাথে বিচ্ছেদের কারণে! ভক্তদের এমনটাই ধারণা। তারা মনে করে আনুশকা নেই বলে ক্রিকেটে পুরোপুরি মন দিতে পারছেন কোহলি। অস্ট্রেলিয়া সফরের পর এশিয়া কাপ ও বিশ্বকাপে তারই প্রমাণ মিলছে কোহলির একের পর এক ম্যাচ জেতানো ব্যাটিংয়ে।

গাভাস্কার ট্রল করা লোকজনকে হতাশায় আক্রান্ত ঈর্ষকাতর মানুষ হিসেবে অভিহিত করছেন। তিনি মনে করেন, আনুশকা উদীয়মান কোহলির মাঝে স্থীরতা এনে দিয়েছেন। ছটফটে কোহলি পরিণত হয়েছেন, দায়িত্ব নিতে শিখেছেন আনুশকার কারণেই। একটি সংবাদ মাধ্যমে গাভাস্কার বলেছেন, "এই টুকু বলতে পারি যে ওরা (যারা ট্রল করে) হতাশাবাদী, ঈর্ষাকাতর। তাদের সম্পর্কের অবস্থা সম্পর্কে আমার জানা নেই। তবে সে খুব চমৎকার একটা মেয়ে। একসাথে তাদের অসাধারণ লাগে। সে (কোহলি) যখন ভারতের ব্যাটিংয়ের প্রধান অস্ত্র হয়ে উঠছে তখন তার মধ্যে অনেক স্থীরতা এনে দিয়েছে সে (আনুশকা)। সে নিজেও বলেছে যে তার জীবনে ইতিবাচক ভূমিকাই রয়েছে তার (আনুশকার)। "


মন্তব্য