kalerkantho

25th march banner

বিবিসি বাংলার প্রতিবেদন

ভারতে ব্যাটসম্যান বিরাট কোহলি বন্দনা : শচীন টেন্ডুলকারের সাথে তুলনা

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৮ মার্চ, ২০১৬ ২০:০২



ভারতে ব্যাটসম্যান বিরাট কোহলি বন্দনা : শচীন টেন্ডুলকারের সাথে তুলনা

বিশ্ব টি-টোয়েন্টিতে অস্ট্রেলিয়ার সাথে শ্বাসরুদ্ধকর এক ম্যাচের পর ভারতীয় ক্রিকেটার বিরাট কোহলিকে একজন ‘প্রতিভাবান ব্যাটসম্যান’ হিসেবে উল্লেখ করা হচ্ছে।

তার দুর্দান্ত ইনিংসেই ভারত অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়ে টুর্নামেন্টের সেমিফাইনালে উঠেছে।

একটা সময় ম্যাচ ভারতের নাগালের বাইরে চলে গিয়েছিলো কিন্তু বিরাট কোহলির ঝড়ো ইনিংসের মধ্য দিয়ে স্বাগতিক দল সেই চাপের ভেতর থেকে বেরিয়ে আসে এবং খেলা শেষ হতে পাঁচ বল বাকি থাকতেই ম্যাচ জিতে নেয়।

বিরাট কোহলি ৫১ বলে ৮২ রান করে অপরাজিত ছিলেন।

তবে জয়সূচক রান নিয়েছেন অধিনায়ক এমএস ধোনি।

বিরাট কোহলির এই ইনিংসের পর তাকে সচীন টেন্ডুলকারের সাথে তুলনা করা শুরু হয়ে গেছে।

ভারতীয় কিংবদন্তী ক্রিকেটার কপিল দেব তার উচ্ছ্বাসিত প্রশংসা করে বলেছেন, “ব্যাট হাতে প্রতিভাবান এই ক্রিকেটারকে অভিনন্দন জানাই। ”

কপিল দেব ভারতের দ্রুততম বোলারদের একজন। তিনি বলেছেন, "আমি সবসময় বিশ্বাস করি টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট শুধু বল পেটানো বা বেপরোয়া ব্যাট পেটানো নয়। আপনি আপনার স্বাভাবিক খেলাটাও খেলতে পারেন এবং বোলাদের সাথে লড়াইয়ে জিতে যেতে পারেন। বিরাট কোহলি তার খেলায় সেটাই করে দেখিয়েছেন। "

ভারতীয় ভাষ্যকার প্রকাশ ওয়াকানকার বলেছেন, বিরাট কোহলি দলে সচীন টেন্ডুলকারের মর্যাদাকেও ছাড়িয়ে যেতে পারেন।

প্রতিপক্ষের রানা তাড়া করতে অত্যন্ত দক্ষ হয়ে উঠেছেন বিরাট কোহলি।

এই টুর্নামেন্টের চারটি ম্যাচে তিনি করেছেন ১৮৪ রান।

সর্বোচ্চ রান সংগ্রহকারীদের মধ্যে তার অবস্থান তিন নম্বরে।

ভাষ্যকার ওয়াকানকার বলেছেন, “বিরাট কোহলি ভারতের পুরো টিমকে ধরে রেখেছেন। তার সাহস কথা যেনো তার ব্যাটই বলে দিচ্ছে। আর নিজের ওপর তার পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণও আছে। ”

“তিনি এমন এক জায়গায় আছেন যেখানে তিনি কোনো ভুল করতে পারেন। ”

“তার আদর্শ সচীন টেন্ডুলকার থেকে তিনি শিখেছেন চাপের মধ্যে কিভাবে ব্যাট চালাতে হয়। শান্ত থেকে নিজের স্বাভাবিক খেলাটা খেলেই রান বের করে আনতে হয়। বিরাট কোহলিই হতে পারেন টেন্ডুলকারের যোগ্য উত্তরসূরি। ”

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ফাইনালে ভারত এখন মুখোমুখি হবে ওয়েস্ট ইন্ডিজের, আগামী বৃহস্পতিবার।


মন্তব্য