kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৭ জানুয়ারি ২০১৭ । ৪ মাঘ ১৪২৩। ১৮ রবিউস সানি ১৪৩৮।


টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ

ভারতকে ১৬১ রানের চ্যালেঞ্জ দিল অস্ট্রেলিয়া

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৭ মার্চ, ২০১৬ ২১:৩৮



ভারতকে ১৬১ রানের চ্যালেঞ্জ দিল অস্ট্রেলিয়া

মারো অথবা মরো ম্যাচ। অস্ট্রেলিয়ার দুই ওপেনার সেই ম্যাচে যেভাবে পেটাতে শুরু করেছিলেন ভারতীয় বোলারদের তাতে স্বাগতিকদের তো হার্টবিট বেড়ে গেলো! কারণ, এই ম্যাচ হারলে বিশ্বকাপ থেকে বিদায়। জিতলে সেমিফাইনাল। ভারতের বোলাররা এরপর লড়াইয়ে ফিরলো। তাতে অস্ট্রেলিয়া শেষ পর্যন্ত ৬ উইকেটে তুললো ১৬০ রান। মোহালির উইকেটে ভারতের শক্তিশালী ব্যাটিং লাইন আপের সামনে খুব বড় রান নয়।

দ্বিতীয় ওভারে জসপ্রিত বুমরাহকে ৪টি বাউন্ডারি মেরে দিলেন উসমান খাজা। ১৭ রান এই ওভারে। চতুর্থ ওভারে এমএস ধোনি তাই বুমরাহকে সরিয়ে স্পিনার রবিচন্দ্রন অশ্বিনকে বল দিলেন। কিন্তু এবার অ্যারন ফিঞ্চ যে তাকে পরপর দুই বলে দুই ছক্কা হাঁকিয়ে দিলেন! ২২ রান এই ওভারে! আগের ওভারে আশিস নেহরাও মার খাওয়ায় ধোনির কপালে তখন ঘাম। পেসার নেহরা নিজের তৃতীয় ওভারে বিপজ্জনক উসমান খাজাকে (২৬) তুলে নিলে বেশ স্বস্তি পায় ভারত। উইকেটের পেছনে চমৎকার ক্যাচ নিয়েছেন ধোনি। ৫৪ রানে প্রথম ব্যাটসম্যান হারায় অস্ট্রেলিয়া।

৪ ওভারে ৫৩ রান তুলে ফেলা অস্ট্রেলিয়াকে এরপর চেপে ধরে ভারতীয়রা। দারুণভাবে লড়াইয়ে ফিরেছে স্বাগতিকরা। পরের ৬ ওভারে ২৮ রান তুলতে ডেভিড ওয়ার্নার (৬) ও অধিনায়ক স্টিভ স্মিথকে (২) হারালো অস্ট্রেলিয়া। ওয়ার্নারকে আউট করলেও অশ্বিন ২ ওভারে ৩১ রান দেয়ায় আর বল পেলেন না। বাঁ হাতি স্পিনার রবিন্দ্র জাদেজা প্রথম ২ ওভারে মাত্র ৬ রান দিলেন। শেষের ১ ওভারে দিয়েছেন ১৪।  

গ্লেন ম্যাক্সওয়েলের সাথে ফিঞ্চের ২৬ রানের জুটি হলো। ফিঞ্চ ততক্ষণে উইকেটে বেশ থিতু হয়েছেন। কিন্তু ১৩তম ওভারে দলের রান ১০০তে নিয়ে ফিঞ্চ বিদায় নিলেন। হার্দিক পান্ডিয়াকে পুল করে ক্যাচ দিয়ে ফেরার সময় ৩৪ বলে ৪৩ রান তার। দায়িত্ব নিয়ে খেলছিলেন ম্যাক্সওয়েল। জাদেজাকে সুইচ হিটে ছক্কা মেরে দিলেন! কিন্তু বুমরাহ তাকে স্লোয়ারে বোল্ড করলেন পরের ওভারে। ৩১ রানে বিদায় ম্যাক্সওয়েলের।

শেন ওয়াটসন ও জেমস ফকনারের হাতে থাকলো শেষ ২১ বল। কিন্তু এই জুটি ১৬ বল খেলে ১৫ রান তুললো। শেষ ওভারের প্রথম বলে পান্ডিয়া তুলে নেন ফকনারকে (১০)। শেষ ৪ বলে তাও ১৫ রান তুলে একটু এগিয়েছে অস্ট্রেলিয়া। ওয়াটসন ১৮ ও পিটার নেভিল ২ বলে ১০ রানে অপরাজিত থেকেছেন। নেহরা ২০ রানে ১ উইকেট নিয়েছেন। যুবরাজ ৩ ওভারে ১৯ রানে ১ উইকেট পেযেছেন।   ৪ ওভারে ৩২ রানে ২ উইকেট পান্ডিয়ার।   অশ্বিন সবচেয়ে খরুচে। ২ ওভারে ৩১ রানে ১ উইকেট।  


মন্তব্য