kalerkantho


টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ

হার দিয়েই জাহানারাদের বিশ্বকাপ শেষ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৪ মার্চ, ২০১৬ ২৩:০১



হার দিয়েই জাহানারাদের বিশ্বকাপ শেষ

রান নেহাত খারাপ করেনি বাংলাদেশ দল। ৯ উইকেটে ১১৩। ইনিংসে চারটি রান আউট না থাকলে সংগ্রহটা আরো বড় হতে পারতো। কিন্তু দিল্লির ফিরোজ শাহ কোটলাতে জাহানারা আলমদের বোলিং অ্যাটাক পাকিস্তানের ব্যাটিংকে কখনোই যে হুমকিতে ফেলতে পারলো না! ১৬.৩ ওভারে ১ উইকেটে ১১৪ রান তুলেছে পাকিস্তান। জিতেছে ৯ উইকেটে। টানা চার ম্যাচ হেরে এবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ শেষ করলো বাংলাদেশের মেয়েরা। ৩ ম্যাচের দুটিতে জিতে পাকিস্তানের মেয়েরা সেমিফাইনালে খেলার আশা বাঁচিয়ে রাখলো।

টস জিতে জাহানারা বলেছিলেন, ১২০-১২৫ হলেই হবে। তাদের বোলিং পাকিস্তানকে রুখে দিতে পারবে। দ্বিতীয় ওভারে সালমা খাতুন যখন নাহিদা খানকে এলবিডাব্লিউর ফাঁদে ফেললেন তখন মনে হয়েছিল, হতেও পারে। কিন্তু বিসমাহ মাহরুফ ও ওপেনার সিদরা আমিন মিলে আর কোনো সুযোগই দিলেন না বাংলাদেশের বোলারদের। দ্বিতীয় উইকেটে পাকিস্তানের নতুন জুটির রেকর্ড গড়েছেন তারা। ৯৯ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটিতে বাংলাদেশের কাছ থেকে ম্যাচ ছিনিয়ে নিয়েছেন। সিদরা ৪৮ বলে ৫৩ ও বিসমাহ ৪২ বলে ৪৩ রানে অপরাজিত ছিলেন।
 
এর আগে ব্যাট করতে নেমে ২২ রানে ২ উইকেট হারিয়ে ফেলে বাংলাদেশ। সালমা খাতুন ১০ রান দিয়ে গেছেন। এরপর তৃতীয় উইকেটে ফারজানা ও ওপেনার শারমিন আখতার ৪৩ রানের জুটি গড়ে তোলেন। ৯.১ ওভার ব্যাট করেছেন তারা। পাকিস্তান অধিনায়ক সানা মির বিচ্ছিন্ন করেন এই জুটিকে। শারমিন ৩৪ বলে ১৯ রান করে ফিরে যান। এরপর ফারজানা ৩৭ বলে ক্যারিয়ার সেরা ৩৬ রান করে আউট হয়েছেন। এটাই ইনিংস সেরা রান।

৬৫ থেকে ৮৯ রানে যেতে ৫ উইকেট হারিয়েছে বাংলাদেশ। শেষের দিকে অধিনায়ক জাহানারা ও লতা মণ্ডল দ্রুত রান তোলার চেষ্টা করেছেন। জাহানারা ১১ ও লতা ১২ রান করেছেন। তাতে মাঝারি একটা সংগ্রহই পেয়েছিল মেয়েদের দল। কিন্তু বোলিংয়ে পাকিস্তানকে নাড়িয়ে দিতে পারেননি তারা।     


মন্তব্য