kalerkantho


টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ

ভারতকে চাপেই রেখেছে বাংলাদেশ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৩ মার্চ, ২০১৬ ২০:৫৭



ভারতকে চাপেই রেখেছে বাংলাদেশ

 

আগের ম্যাচে বাংলাদেশ দল ছিল এক মন ভাঙ্গা দল। কিন্তু ভারতের বিপক্ষে মাশরাফি বিন মর্তুজার দলের বডি ল্যাঙ্গুয়েজ পাল্টে গেছে। বোলিং-ফিল্ডিংয়ে চমৎকার এক ইউনিট হিসেবে খেলা চালিয়ে যাচ্ছে। টস হেরে বেঙ্গালুরুতে ব্যাট করছে ভারত। ১১ ওভারের খেলা শেষেও চাপে তারা। পরপর দুই ছক্কা মেরে সুরে রায়না সেই চাপ কমানোর চেষ্টা করলেন। ২ উইকেটে ৭৩ রান ভারতের। বিরাট কোহলি ১২ ও রায়না ১৮ রানে ব্যাট করছেন।

মাশরাফি প্রথম ওভার করেছেন। এরপর টানা চার ওভারে চার বোলার এনেছেন। একে একে এসেছেন অফ স্পিনার শুভাগত হোম, আল-আমিন হোসেন, মুস্তাফিজুর রহমান ও সাকিব আল হাসানকে। ভারতের দুই ওপেনার ঝুঁকি নিতে পারেননি। ৫ ওভারে রান এসেছে ২৭। বাউন্ডারির মার তিনটি। গত বছর ভারতের বিপক্ষেই বিস্ময়কর অভিষেক ঘটেছিল মুস্তাফিজের। কাটার বিশেষজ্ঞ আবির্ভাবে ভারতকে ওয়ানডে সিরিজ হারানোয় বড় ভূমিকা রেখেছিলেন। এদিন ম্যাচের ষষ্ঠ ওভারে দুই ওপেনার তাকে দুই ছক্কা হাঁকালেন। কিন্তু ওভারের শেষ বলে শোধ নিলেন মুস্তাফিজ। রোহিত শর্মা (১৮) মিড উইকেটে ক্যাচ দিয়ে ফিরেছেন। পরের ওভারে সাকিব এলবিডাব্লিউর ফাঁদে ফেলেছেন অন্য ওপেনার শিখর ধাওয়ানকে (২৩)।

এরপর মাশরাফি আবার ফিরলেন। ফিরলেন শুভাগতও। পাওয়ার প্লের ৬ ওভারে ১ উইকেটে ৪২ রান করা ভারতকে রানের জন্য খাটতে হচ্ছিল। বিরাট কোহলি ও সুরেশ রায়না উইকেটে। কিন্তু সাকিব-মাশরাফি-শুভাগত পরের ৪ ওভারে দিয়েছেন মাত্র ১৭ রান। ১০ ওভার শেষে ২ উইকেটে ৫৯ রান ভারতের। স্বাগতিকদের বড় রান করার চেষ্টাটা বড় ধাক্কা খেয়েছে তো বটেই।

বাংলাদেশ-ভারতের গ্রুপ থেকে সেমিফাইনালে উঠে গেছে নিউজিল্যান্ড। আর একটি দল এই গ্রুপ থেকে শেষ চারে যাবে। এটা ভারতের ঘরের মাঠের বিশ্বকাপ। শিরোপার অন্যতম প্রধান দাবিদার তারা। ২ ম্যাচের একটিতে জিতেছে তারা। একটিতে হেরেছে। বাংলাদেশের বিপক্ষে নেট রান রেট বাড়িয়ে নিয়ে জিততে চায় তারা। যাতে শেষে এটা তাদের কাল না হয়। বড় রান করে বড় ব্যবধানে জেতার চেষ্টা করবে তারা। এরপর বাকি থাকবে শুধু অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ম্যাচ। বাংলাদেশ দুই ম্যাচে হেরে যাওয়ায় সেমিফাইনালের দৌড় থেকে প্রায় ছিটকে পড়েছে। ভারতের কাছে হারলে বিশ্বকাপ থেকে বিদায় নিশ্চিত হয়ে যাবে টাইগারদের।


মন্তব্য