kalerkantho

রবিবার। ২২ জানুয়ারি ২০১৭ । ৯ মাঘ ১৪২৩। ২৩ রবিউস সানি ১৪৩৮।


টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ

গেইল হয়ে ফ্লেচার জেতালেন ওয়েস্ট ইন্ডিজকে

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২০ মার্চ, ২০১৬ ২৩:২৭



গেইল হয়ে ফ্লেচার জেতালেন ওয়েস্ট ইন্ডিজকে

ফিল্ডিংয়ের সময় হ্যামস্ট্রিংয়ে টান পড়েছিল। বেঙ্গালুরুর দর্শকরা তা জানেন না। ওয়েস্ট ইন্ডিজের ইনিংসের শুরুতে 'গেইল, গেইল' রবে উচ্চকিত স্টেডিয়াম। ক্রিস গেইলের ব্যাটিং ওপেন করতে নামা হলো না। অপেক্ষায় ছিলেন, প্রয়োজন হলে নামবেন। তিন উইকেট পড়ার পর নামতে গেলেন। কিন্তু ফিল্ডিংয়ের সময় মাঠের বাইরে ছিলেন। তাই নিয়ম অনুযায়ী আরেকটু পর নামতে পারতেন। প্রস্তুত হয়ে ছিলেন গেইল। কিন্তু ওয়েস্ট ইন্ডিজ ম্যাচ উইনারদের দল! গেইলের জায়গায় ওপেন করেছেন আন্দ্রে ফ্লেচার। খেলতে নেমেছেন বিশ্বকাপে নিজের প্রথম ম্যাচ। বিশাল বিশাল শটে গেইলের বিনোদন তিনিই দিলেন! ফ্লেচারের অপরাজিত ৮৪ রানে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ৭ উইকেটে হারিয়েছে শ্রীলঙ্কাকে।

দারুণ বোলিংয়ে বেঙ্গালুরুর এম চিন্নাস্বামী স্টেডিয়ামে ৯ উইকেটে ১২২ রানে লঙ্কানদের আটকে ফেলেছিল ক্যারিবিয়ানরা। ১০ বল হাতে রেখেই গেইলদের দল জিতেছে। ৩ উইকেটে করেছে ১২৭ রান। ৬৪ বলে ৫টি ছক্কা ও ৬টি চারে ক্যারিয়ার সেরা ৮৪ রান করেছেন ফ্লেচার।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের মতো দলকে এতো অল্প পুঁজি নিয়ে ঠেকাতে লঙ্কানদের অসাধারণ বল করতে হতো। কিন্তু ফ্লেচার শুরুতেই ঝড় তুলেছেন। অধিনায়ক অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুস প্রথম ওভারে ১৩ রান দিয়ে আর বলই হাতে নিলেন না। অভিজ্ঞ রঙ্গনা হেরাথও নির্মমতার শিকার হয়েছেন। তবে ষষ্ঠ ওভার থেকে একটু ছন্দ পতনের মধ্যে পড়েছে ক্যারিবিয়ানরা। লেগ স্পিনার জেফরি ভ্যান্ডারসে জনসন চার্লসকে তুলে নিয়েছেন। মারলন স্যামুয়েলসও (৩) দ্রুত বিদায় নিয়েছেন। মাঝে রানের গতি কিছুটা কমেছে।

৭২ রানের সময় দিনেশ রামদিন (৫) ফেরার পর ফ্লেচারের সাথে বাকি কাজটা করছেন আন্দ্রে রাসেল। ৮ বলে ২০ রান করে অপরাজিত ছিলেন রাসেল। লঙ্কানরা গোটা দুয়েক ক্যাচ ছেড়েছে। ফিল্ডিংয়ে কিছু বাড়তি রান দিয়েছে। নইলে চাপটা হয়তো আরো বাড়াতে পারতো। তাদের জন্য মনে রাখার মতো থাকলো শুধু ভ্যান্ডারসের ৪ ওভারে ১ মেইডেন ও ১ উইকেটে ১১ রান।      

এর আগে ব্যাটিংয়ে শ্রীলঙ্কার শুরুতে প্রতিশ্রুতি ছিল। কিন্তু যেই না তিলকারত্নে দিলশান (১৬) কার্লোস ব্রাথওয়েটের শিকার হলেন অবস্থা পাল্টাতে থাকলো। অন্য ওপেনার দিনেশ চান্দিমালও (১৬) দ্রুত ফিরেছেন। পতন শুরু ওখানেই। লঙ্কানদের টপ অর্ডার আক্ষরিক অর্থেই তাসের ঘরের মতো ভেঙ্গে পড়লো। ১৫ রানের মধ্যে ৪ উইকেট হারালো তারা। তার মানে ৪৭ রানে ৫ উইকেট নেই লঙ্কানদের। অসাধারণ বোলিং ছিল দুই স্পিনার স্যামুয়েল বদ্রি ও সুলিমান বেনের। লেগি বদ্রি নবম ওভারে জোড়া উইকেট নিয়েছেন। বাঁ হাতি বেন উইকেট না পেলেও রান দিচ্ছিলেন খুব কম।

১০ ওভারে মাত্র ৫৪ রান আসে শ্রীলঙ্কার। অধিনায়ক অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুস ষষ্ঠ উইকেটে থিসারা পেরেরাকে নিয়ে ইনিংস মেরামত করেছেন। ৪৪ রানের জুটি গড়েছেন তারা। কিন্তু ছিলেন খুব চাপের মুখে। শেষ দিকে রান তোলার তাড়া। এই সময়ে ২০ রান করা ম্যাথুস আউট হয়ে গেলেন। পেসার ডোয়াইন ব্রাভোর শিকার তিনি। পেরেরা শেষ ওভার পর্যন্ত ব্যাট করে ২৯ বলে ইনিংস সর্বোচ্চ ৪০ রান দিয়ে গেছেন। বদ্রি ৪ ওভারে ১২ রানে ৩ উইকেট নিয়েছেন। বেন ৪ ওভারে মাত্র ১৩ রান দিয়েছেন। আর ব্রাভো ৪ ওভারে ২০ রান দিয়ে ২ উইকেট নিয়েছেন। আন্দ্রে রাসেল ও ব্রাথওয়েটের ৮ ওভারেই ৭০ রান উঠেছে। তাতে ক্ষতি হয়নি। টানা দ্বিতীয় জয় তুলে নিয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। প্রথম ম্যাচে জেতার পর দ্বিতীয় ম্যাচে হারলো শ্রীলঙ্কা।  


মন্তব্য