হংকংকে সহজে হারাতে পারেনি-333653 | খেলাধুলা | কালের কণ্ঠ | kalerkantho

kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২৯ সেপ্টেম্বর ২০১৬। ১৪ আশ্বিন ১৪২৩ । ২৬ জিলহজ ১৪৩৭


বিশ্ব টি-টোয়েন্টি

হংকংকে সহজে হারাতে পারেনি জিম্বাবুয়ে

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৮ মার্চ, ২০১৬ ১৯:১৬



হংকংকে সহজে হারাতে পারেনি জিম্বাবুয়ে

এল্টন চিগুম্বুরার ১৩ বলের অপরাজিত ৩০ কতো গুরুত্বপূর্ণই না প্রমাণিত শেষে! বিশ্ব টি-টোয়েন্টির বাছাইয়ের প্রথম ম্যাচে জিম্বাবুয়ে ১৪ রানে হারিয়েছে হংকংকে। ৮ উইকেটে ১৫৮ রান করেছিল জিম্বাবুয়ে। শেষে ঝড় তুলেছিল হংকংও। কিন্তু রানটা একটু বেশি হয়ে গেছে। আর তা হয়েছে চিগুম্বুরার শেষের ঝড়ের কারণেই। নইলে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে আপসেট ঘটিয়ে দেয়ার পরিস্থিতিই তৈরি করেছিল কিন্তু হংকং। নাগপুরে 'বি' গ্রুপের খেলায় ৬ উইকেটে ১৪৪ রানে থেমেছে তারা। মঙ্গলবার প্রথম জয় দিয়ে জিম্বাবুয়ে সুপার টেনের মূল পর্বের দিকে এক ধাপ এগিয়ে গেলো।

হংকংয়ের ওপেনার জ্যামি অ্যাটকিনসন খেলেছেন ৫৩ রানের দারুণ এক ইনিংস। ৪৪ বলে ৪টি চার ও ২টি ছয়ের মার। ১০৮ রান পর্যন্ত টিকে ছিলেন অ্যাটকিনসন। ডোন্যাল্ড টিরিপানো তাকে বিদায় করে স্বস্তি দিয়েছেন জিম্বাবুয়েকে। মাঝে আছে মার্ক চ্যাপম্যানের ১৯ ও আনশুমান রাথের ১৩ রানের ইনিংস। অধিনায়ক তানবির আফজাল শেষ চেষ্টা করে দেখতে চেয়েছেন। শেষে খুব মারছিলেন। কিন্তু ১৯তম ওভারে টেন্ডাই চাতারা পরপর দুই উইকেট তুলে নিয়ে বাধ দিয়েছেন। শেষ তিন ওভার দারুণভাবে সামলে নিয়েছেন বোলাররা। ১৭ বলে ৩১ রানে অপরাজিত থেকেও তানবির তাই হতাশায় পুড়েছেন। ম্যাচের সেরা হয়েছেন জিম্বাবুয়ের ওপেনার ভুসি সিবান্দা।

টসে হেরে ব্যাট করতে নেমে জিম্বাবুয়ে দ্রুত এগিয়ে গেলো। চার ছক্কা দিয়ে শুরু মাসাকাদজার। কিন্তু ১৩ বলে ২০ রান করে হাস্যকর রান আউটের শিকার তিনি। এরপর এগিয়ে যেতে যেতে আরো ৩ উইকেট হারিয়েছে জিম্বাবুয়ে। রানের গতি কমেছিল। সিবান্দা ও ম্যালকম ওয়ালার (২৬) পঞ্চম উইকেটে ৬১ রানের জুটি গড়েছেন।

কিন্তু এরপর ৮ বলের মধ্যে ৩ উইকেট হারালো জিম্বাবুয়ে। সিবান্দা ৪৬ বলে ৫টি চার ও ২টি ছক্কায় ইনিংস সর্বোচ্চ ৫৯ রান করে ফিরেছেন। শেষটায় চিগুম্বুরা টর্নেডো ইনিংস খেলেছেন। শেষ দুই ওভারে এসেছে ২৯ রান। চিগুম্বুরা ১৩ বলে ৩ ছক্কায় ৩০ রানে অপরাজিত থেকে শক্ত একটা স্কোর দিয়েছেন দলকে। ২টি করে উইকেট নিয়েছেন দুই মিডিয়াম পেসার তানবির ও আইজাজ খান। পরে বোলাররা জিতিয়েছেন জিম্বাবুয়েকে।

মন্তব্য